সড়ক দুর্ঘটনায় পদ্মা কলেজে শিক্ষার্থীর ঘটনাস্থলে মৃত্যু

1003
পদ্মা কলেজে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

শরিফ হাসান/ মাহমুদুল হাসান সুমন: সড়ক দুর্ঘটনায় পদ্মা সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী স্বর্ণা আক্তারের স্পট ডেথ হয়েছে। সোমবার সকাল সাড়ে নয়টায় কামারগা আইডিয়াল স্কুলের সামনে এই দুর্ঘটনা ঘটে। স্বর্ণা দ্বাদশ শ্রেণির মানবিক শাখার শিক্ষার্থী ছিল। তার রোল ৪৩৭। সে পদ্মা কলেজের একজন সক্রিয় রোভার মেট। বাবার নাম সেকেন্দার খালাসী, বাড়ী – মুকসুদপুর ইউনিয়নের ঢালারপাড়। স্বর্ণা আব্দুর রাজ্জাক হাসপাতালে এক সময় কর্মরত ছিলো।

প্রত্যক্ষদর্শী বিবরণে জানা যায়, একটি সুজুকি নীল রঙের জিক্সার বাইকে স্বর্ণা ও একটি ছেলে তীব্র গতিতে আসার সময়, কামারগা আইডিয়াল স্কুলের সামনের ছোট ৫টি রোড ডিভাইডার অতিক্রম সময় স্বর্ণা পড়ে যায়। এ সময় পিছনে থাকা ইট বহনকারী মাহেন্দ্র স্বর্ণার মাথা থেতলে পালিয়ে যায়। বাইকে থাকা চালকও দ্রুত পালিয়ে যায়।

পদ্মা সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ জালাল হোসেন বলেন, আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। আমার শিক্ষার্থী, আমার সন্তানের মৃত্যুতে আমি শোকে বিহ্বল। আমি বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি এবং শোকার্ত পরিবারের প্রতি কলেজের পক্ষ থেকে সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।

তিনি আরও বলেন, প্রায় প্রতি বছরই আমাদের শিক্ষার্থীরা সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যায়। এই দুঃখ আমরা কোথায় রাখবো? আমরা এর স্থায়ী এবং আইনানুগ প্রতিকার চাই। লাইসেন্সবিহীন মোটরসাইকেল এবং মাহিন্দ্র ও ট্রাক নিষিদ্ধ করা হোক। আমরা স্বর্ণার মৃত্যুর সাথে পরোক্ষ বা প্রত্যক্ষ কেউ জড়িত থাকলে, সেই ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে অনুরোধ জানাই। কলেজে দোয়া ও শোক প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়েছে। একইসাথে, শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের সচেতন হতে আন্তরিক অনুরোধ জানাই। ইতঃমধ্যে পদ্মা সরকারি কলেজ তাদের পিঠা উৎসব স্থগিত ঘোষণা করেছে।

অন্য খবর  দোহারে বিষপানে যুবকের আত্মহত্যা

এ বিষয়ে শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল তাইয়বী জানান, আমরা ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেছি। এখন লাশ থানায় আছে। পরিবারের সদস্যরা এসেছেন মামলা প্রক্রিয়াধীন চলছে। মামলা হলে আমরা পরাবর্তী আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

আপনার মতামত দিন