দোহারে নিজস্ব অর্থয়নে রাস্তা মেরামতের কাজ শুরু করছেন ডাঃ জসীমউদ্দিন

251
দোহারে নিজস্ব অর্থয়নে রাস্তা মেরামতের কাজ শুরু করতেছেন ডাঃ জসীমউদ্দিন

ঢাকা জেলার দোহার উপজেলায় নিজ অর্থআয়নে হাসপাতালের বিপরীত পাশে রাস্তা মেরামতের কাজ শুরু করেছেন দোহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মকর্তা ডাঃ জসীমউদ্দিন। জয়পাড়া রতন চত্বর থেকে প্রেসক্লাব ভবন হয়ে রাস্তাটি আর সিসি ঢালাই হয়ে দীর্ঘদিন কাজ বন্ধ থাকে। আর সেই বন্ধ থাকা রাস্তায় জয়পাড়া বাজারের হোটেল ও রেস্তোরাঁ ময়লা ফেলে তৈরি করছে ময়লার ভাগাড়। এই ময়লার দূর্গন্ধে এই রাস্তায় চলাচল হয়ে পড়েছে প্রায় অসম্ভব। অন্যদিকে মশার ঔষুধ ব্যবহার না করায় এই ময়লার ভাগাড় হয়ে পড়েছে মশার নিরাপদ প্রজনন ক্ষেত্র। ফলে একদিকে স্বাস্থ্য ঝুকিতে পড়েছে দোহার পৌরসভা বাসী ও হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীরা। এই রাস্তাটির এক পাশে রয়েছে সরকারি হাসপাতাল ও অন্য পাশে রয়েছে দোহার উপজেলা পরিষদ এবং সামনের দিকে রয়েছে দোহার প্রেসক্লাব। গুরুত্বপূর্ণ জায়গা হিসেবে পরিচিত হলেও তার কোন পরিচয় নাই এখন ময়লার ভাগাড় কারনে।

দোহারে নিজস্ব অর্থয়নে রাস্তা মেরামতের কাজ শুরু করতেছেন ডাঃ জসীমউদ্দিন

এবিষয়ে ডাঃ জসীমউদ্দিনের সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমি আমার নিজ অর্থয়নে এই রাস্তাটি মেরামত করছি। এতে আমার প্রায় ৩০-৫০ হাজার টাকা খরচ যাবে। আমি এই রাস্তাটি করার কারন আমার হাসপাতালের চাপ কমানোর জন্য। এই রাস্তাটি বন্ধ থাকার কারনে জনগণ হাসপাতালে ভিতর দিয়ে যাতায়েত করতো আর তাছাড়া এখন আমাদের হাসপাতালে করোনা রোগী রয়েছে। জনগণ যদি এদিক দিয়ে যাতায়াতের ফলে করোনায় আক্রান্ত না হয় সে জন্য আমি এই বিকল্প রাস্তাটি নিজ উদ্যোগে মেরামত করার পরিকল্পনা করি। এই রাস্তার উপর যে ময়লা ফেলা হয় তাতে আমাদের ও রোগীর সমস্যা হয়। আর এ বিষয় নিয়ে আমি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মহাখালী ১৪.৬.২১ তারিখ একটি দরখাস্ত পাঠাই।  এরপর আমি এমপি মহোদয় সালমান এফ রহমানকে বিষয় টা জানাই। পরে পৌরসভাকে বললে তারা জানায়, ময়লা পরিস্কারের ব্যাপারে তারা চেষ্টাচালাচ্ছে তবে ময়লা ফেলার কোন জায়গা না পাওয়া সেটি এখন সম্ভব হচ্ছে না। আমি এই রাস্তাটি পাশে থাকা আমাদের হাসপাতালে ওয়ালে লাইট এর ব্যবস্থা করার চেষ্টা করছি যাতে রাতেও জনগণ এই রাস্তাটি দিয়ে চলাচল করতে পারে।

অন্য খবর  শাইনপুকুর থেকে গাঁজাসহ আটক দুই

এই সময় তিনি রতন চত্ত্বরে থাকা বাস ও গাড়ি স্ট্যান্ড সরিয়ে নেওয়ার আহবান জানান এবং হাসপাতাল রক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসার জন্য আহ্বান জানান।

মন্তব্য