দোহারে চায়না জালে ধরা পরলো রাসেলস ভাইপার

61

ঢাকার দোহার উপজেলার নারিশা ইউনিয়নের পদ্মাচর এলাকা থেকে জেলেদের চায়না জালে ধরা পড়েছে রাসেলস ভাইপার। আজ বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। পরে খবির জেলে সাপটি না মেরে দোহার উপজেলা প্রশাসনের কাছে নিয়ে আসে।

খবির সরকার নামের এক ব্যক্তির জালে সাপটি ধরা পড়ে। খবির সরকার জানান, প্রতিদিনের মতো আজ সকালে চর এলাকায় তিনি জাল পেতেছিলেন মাছ ধরার জন্য । জাল টেনে ওঠানোর সময় দেখেন, একটি সাপ আটকা পড়েছে। পরে স্থানীয় লোকজন রাসেলস ভাইপার ভেবে উপজেলা প্রশাসনকে জানায়। পরে তিনি জীবিত সাপটি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয়ে যান। এই সাপটি প্রায় ৪৫ ইঞ্চি লম্বা।

উপজেলা প্রশাসন সাপ উদ্ধারকারী দলকে সংবাদ দেয়। দলটির সদস্যরা বেলা দুইটায় ইউএনও জাকির হোসেনের সঙ্গে দেখা করেন এবং জালে আটকা পড়া সাপটি নিয়ে যান। এদিকে ইউএনও কার্যালয়ে সাপটি দেখার জন্য উৎসুক জনতা ভিড় করে। পরে উপজেলার দ্বিতীয় তালায় সাপটি হেফাজতে রাখা হয়।

ইউএনও জাকির হোসেন বলেন, পদ্মা নদীর তীরে চরাঞ্চলে জেলেদের জালে রাসেলস ভাইপার সাপটি ধরা পড়েছে। পরে স্থানীয় বাসিন্দারা তাঁর কার্যালয়ে সাপটি নিয়ে আসেন।

অন্য খবর  দোহারে দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভা

তিনি আরো বলেন, উদ্ধারকৃত রাসেল ভাইপারটি স্নেক রেসকিউ টিম বাংলাদেশের সদস্য রকিবুলের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হয়েছে।
গবেষণার কাজে উদ্ধারকৃত রাসেল ভাইপারের পরবর্তী সম্ভাব্য গন্তব্য ভেনম রিসার্চ সেন্টার, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়।

আপনার মতামত দিন