আমরা সবাই দোহারের উন্নয়নের অংশীদার: আলমগীর হোসেন

862

কোন ব্যক্তিবিশেষ নয়, যার যার স্থান থেকে আমরা সবাই দোহার উপজেলার চলমান উন্নয়নের অংশীদার। তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি খাতবিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান দোহারে আসার পর থেকে এ উন্নয়নের ধারা আরও বেশি ত্বরান্বিত হয়েছে। যার ফসল দোহার উপজেলার পদ্মা ভাঙনকবলিত এলাকাগুলো রক্ষার্থে একনেকে এক হাজার কোটি টাকার বরাদ্দের আশ্বাস। বুধবার ঢাকার দোহার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি খাতবিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, পরিকল্পনামন্ত্রী, পানিসম্পদ মন্ত্রী ও স্থানীয় এমপিসহ সমগ্র দোহারবাসী এ প্রাপ্তির অংশীদার। এ উপজেলার উন্নয়নে ভবিষ্যতে আরও ব্যাপক উন্নয়নে সালমান এফ রহমানসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা ও আমি নিজে আমার অবস্থান থেকে সকল প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবো।

গত রোববার দোহার উপজেলার বাহ্রাঘাট এলাকায় পদ্মাতীরবর্তী স্থানে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় যোগ দিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী আ.হ.ম মোস্তফা কামাল এমপি দোহার উপজেলাকে পদ্মার করাল গ্রাস থেকে রক্ষার্থে পদ্মায় বাঁধ নির্মাণের জন্য এক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের আশ্বাস দেন। এর ফলে উপজেলাবাসীর দুই যুগের প্রাণের দাবি রক্ষা করলেন তিনি। কিন্তু উপজেলাবাসীর দীর্ঘদিনের এই দাবি মেটাতে যিনি নেপথ্যে থেকে ভূমিকা রেখেছেন তিনি এ উপজেলার কৃতী সন্তান, দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পপতি সালমান এফ রহমান ও উপজেলা চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন।

অন্য খবর  রাসূল (সা.) নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে দোহারে মোটর সাইকেল র‌্যালি

সংবাদ সম্মেলনে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ বলেন, ‘সালমান এফ রহমান দোহারে আসার পর থেকে যে উন্নয়ন হয়েছে তার সুফল জনগণ ভোগ করছেন। আমরা তার প্রতি কৃতজ্ঞ’।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবুল বলেন, সালমান এফ রহমান দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা আওয়ামী লীগের বিভক্তি দূর করে সকল নেতাকর্মীকে একত্রিত করে উপজেলা আওয়ামী লীগকে এক সুতোয় বেঁধেছেন। তার অক্লান্ত প্রচেষ্টা ও সাধনায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর হোসেন গত উপজেলা নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন। তার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায়ই এতো বছর পর দোহারের উন্নয়নে এ পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ পাওয়া গেল।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আহসান খোকন শিকদার বলেন, দীর্ঘদিনের চেষ্টা ও দোহারবাসীকে দেয়া আশ্বাস পূরণ করতে সালমান এফ রহমান পরিকল্পনামন্ত্রী আ.হ.ম মোস্তফা কামালকে নিয়ে পদ্মার ভাঙনকবলিত এলাকা রক্ষার্থে একনেকে এক হাজার কোটি টাকার বাজেট পাস করিয়েছেন। এ সফলতায় আমরা দোহার উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীসহ উপজেলাবাসী গর্বিত ও আনন্দিত।

উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা জানান, দীর্ঘ এক যুগ পর দোহারে এসে উপজেলা আওয়ামী লীগের এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সালমান এফ রহমান দোহার উপজেলাকে একটি আধুনিক ও মডেল উপজেলা হিসেবে গড়ে তোলার আশ্বাস দেন। ঐ সভায় তিনি জানান, দোহার উপজেলার প্রধান সমস্যা পদ্মার ভাঙন রোধে দ্রুত বাঁধ নির্মাণের জন্য তার বন্ধুবর পরিকল্পনামন্ত্রী আ.হ.ম মোস্তফা কামাল ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে তিনি বিশেষ অনুরোধ করবেন। সেই আশ্বাসের পর তিনি আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে গেছেন। বেশ কয়েকবার পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাসহ তিনি পদ্মার ভাঙনকবলিত নয়াবাড়ি ও নারিশা ইউনিয়ন পরিদর্শন করেন। দীর্ঘদিনের চেষ্টা ও দোহারবাসীকে দেয়া আশ্বাস পূরণ করতে তিনি পরিকল্পনামন্ত্রী আ.হ.ম মোস্তফা কামালকে নিয়ে পদ্মার ভাঙনকবলিত এলাকা সরজমিন পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী পদ্মার ভাঙন রোধে উপজেলার নদী তীরের ১০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাঁধ নির্মাণে প্রায় এক হাজার কোটি টাকা অচিরেই বরাদ্দ দেয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়ে যান।

অন্য খবর  মটর সাইকেল দুর্ঘটনায় ঝরে গেল আরও একটি তাজা প্রান

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক সুরুজ আলম সুরুজ, নয়াবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান শামীম আহম্মেদ হান্নান প্রমুখ।

আপনার মতামত দিন