যেভাবে ব্যবহার করবেন ৩০ পয়সার কলরেট

128
যেভাবে ব্যবহার করবেন ৩০ পয়সার কলরেট

মিনিট প্রতি মাত্র ৩০ পয়সা খরচে (ভ্যাটসহ ৩৪ পয়সা) দেশের যেকোনো মোবাইল অপারেটর ও ল্যান্ডফোনে কথা বলার জন্য একটি টেলিসেবা অ্যাপ চালু হয়েছে । ‘আলাপ’ নামের এ অ্যাপটিতে নিবন্ধন করলে পাওয়া যাচ্ছে ১৫ মিনিট ফ্রিতে কথা বলার সুযোগ। ইন্টারনেট ব্যবহারকারী বা নেটিজেনদের মধ্যে আলোচনা এখন রাষ্ট্রীয় টেলিযোগাযোগ সংস্থা বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন কোম্পানি লিমিটেডের (বিটিসিএল) অ্যাপভিত্তিক কলিং সেবা ‘আলাপ’ নিয়ে।  গত ৪ এপ্রিল এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হলেও এরই মধ্যে গুগল প্লে স্টোর থেকে প্রায় দেড় লাখের বেশিবার অ্যাপটি ডাউনলোড করা হয়েছে।

এছাড়া কয়েক হাজার ‘আলাপ’ ব্যবহারকারী এর রিভিউ দিয়েছেন যেখানে এর সুবিধা এবং সহজলভ্যতা নিয়েই মন্তব্য করেছেন তারা। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের ব্যক্তিগত একাউন্টে ‘আলাপ’ সেবা নিয়ে লেখালেখি করছেন অ্যাপটির অনেক ব্যবহারকারী।

তারা বলছেন, শুধু ইন্টারনেট সংযোগ থাকলেই বিনামূল্যে ‘আলাপ’ থেকে কথা বলা এবং চ্যাট করা যাচ্ছে। ‘আলাপ’ থেকে যেকোনো মোবাইল বা ল্যান্ডফোনে কথা বললে প্রতি মিনিটে খরচ হচ্ছে মাত্র ৩০ পয়সা। এমনকি সেখানে প্রতি সেকেন্ড পালস সুবিধাও রয়েছে যা এর আগে কখনো কোনো এপস দিতে পারেনি। তাছাড়া যেকোনো মোবাইল বা ল্যান্ডফোন নম্বর থেকেও আলাপে কল করা নিয়েও ব্যবহারকারীদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। টেলিটক সিম, উচ্চগতির জিপন ইটারনেট সংযোগ এর পরেই আলাপ অ্যাপ’র এই সুবিধা নিয়ে গ্রাহকদের মাঝে চলছে নানান আলোচনা।

অন্য খবর  পকেটে মোবাইল ফোন রাখা ঝুঁকিপূর্ণ

আলাপ ব্যবহারকারীরা বলছেন, আলাপ অ্যাপের মাধ্যমে পরিষ্কার কথা শোনা যায়। একই সাথে মাত্র ৩০ পয়সা কলরেট হওয়ায় এই অ্যাপের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। এটি ব্যবহারের মাধ্যমে দেশের টাকা দেশেই থাকবে বলেও মনে করছেন তারা।

গুগল প্লে স্টোর ও আইওস থেকে আলাপ (alaap) লিখে সার্চ দিলেই পাওয়া যাচ্ছে অ্যাপটি। নিবন্ধনের সময় দরকার হচ্ছে জাতীয় পরিচয়পত্র। আর সফল নিবন্ধনের মাধ্যমে অ্যাপ ব্যবহারকারী পেয়ে যান একটি আইপি ফোন নম্বর। সেই নম্বরটি তার মোবাইল নম্বরের মতই কাজ করে। ওই নম্বর ব্যবহার করে অ্যাপের মাধ্যমে মিনিট প্রতি মাত্র ত্রিশ পয়সায় দেশের যে কোন টেলিফোন বা মোবাইলে কল করা যায়।

কল সেবা ছাড়াও হোয়াটস অ্যাপ বা ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারের মত অ্যাপটি দিয়ে ম্যাসেজ, ছবি, ভিডিওসহ লোকেশন শেয়ার করতে পারছেন ব্যবহারকারীরা। অর্থাৎ এক অ্যাপের মধ্যেই কলসহ সকল সুবিধা নিয়ে এসেছে বিটিসিএল।

Comments

comments