পদত্যাগ পত্র প্রত্যাহার করে বিএনপিতে ফিরলেন নাজমুল হুদা

430

অবশেষে বিএনপিতেই ফিরলেন সাবেক যোগাযোগ মন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। বুধবার বিকেলে নিজের দেওয়া পদত্যাগ পত্র প্রত্যাহার করে বিএনপিতে ফেরার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। বুধবার তিনি তার নির্বাচনী এলাকা ঢাকা-১ আসন দোহারের শাইনপুকুর এলাকায় নিজ বাড়িতে বিএনপি নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভায় এ ঘোষণা দেন তিনি।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে নিউজ৩৯কে নাজমুল হুদা বলেন, শুরু থেকেই বিএনপিতে ছিলাম। এখনও আছি। ভবিষ্যতেও থাকবো। তিনি বলেন, ‘বিএনপি দুঃসময়ে আমার পাশে থাকা জরুরি বলে আমার এলাকার নেতাকর্মীরা মনে করেন। নেতাকর্মীদের ইচ্ছার প্রাধান্য আমি দিতে চাই।’
তিনি আরো বলেন, আপনারা জানেন আমার পদত্যাগপত্র বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গ্রহণ করেননি। আমার দোহারের জনগণ যেহেতু চায়, তাদের সেই চাওয়া তো মানতেই হবে। আমি আমার পদত্যাগ পত্র প্রত্যাহার করে নিলাম। এখন থেকে আমি বিএনপির হয়ে কাজ করে যাব।
নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য নাজমুল হুদা বলেন, ‘আমার নেতাকর্মীদের ইচ্ছার প্রাধান্য আমি দিতে চাই। আপনারা চান আমি বিএনপিতে ফিরে আসি। আপনাদের ইচ্ছার প্রাধান্য দিয়ে আমি বিএনপির জন্য কাজ করে যাব।’
মতবিনিময় সভায় নাজমুল হুদা বলেন, ‘আমার নেত্রী খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রীর আহ্বানে সাড়া দিয়ে হরতাল প্রত্যাহারের উদারতার পরিচয় দিয়েছেন। দুই নেত্রীর এ ধরনের কর্মকাণ্ড দেশের জন্য মঙ্গলজনক। আমার নেত্রীর কর্মকাণ্ডে আমি খুশি। তাই আবার দলের জন্য কাজ করতে ফিরে এলাম।’
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু আমাদেরকে বলেন, ‘দলে ফেরার ঘোষণা দেয়া নাজমুল হুদার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। দল বিষয়টিকে কীভাবে নেবে সেটি দলীয় ফোরামে আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত হবে। তবে দলের আনুগত্যের প্রতি তার অনীহা রয়েছে। এজন্যই তিনি দল থেকে বাদ পড়েছেন।’
প্রসঙ্গত, বিএনপির রাজনীতিতে প্রভাবশালী একাধিক ব্যক্তির কঠোর সমালোচনা, দুই নেত্রীকে এক টেবিলে বসার আহ্বান জানানো, বঙ্গবন্ধুকে জাতির পিতা সম্বোধনসহ আর বিভিন্ন বিষয়ে মন্তব্য করার প্রেক্ষাপটে ২০১০ সালের ২১ নভেম্বর বিএনপির গঠনতন্ত্রের ৫(ঘ) ধারা অনুযায়ী প্রাথমিক সদস্য পদসহ সকল পদ থেকে ব্যারিস্টার নাজমুল হুদাকে বহিষ্কার করা হয়।
পরবর্তীতে ২০১১ সালের ১৯ মার্চ তার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়। এরপর বিগত ২০১২ সালের মে মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আলোচনায় বসার আমন্ত্রণ জানানোর জন্য বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়ার প্রতি আলটিমেটাম দেন বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা।
আল্টিমেটাম অনুযায়ী খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রীকে সংলাপের আমন্ত্রণ না জানানোর কারণে গত ৬ জুন বিএনপি থেকে পদত্যাগ করেন ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা।
উল্লেখ্য তার ফিরে আসার ব্যাপারে নিউজ৩৯ এপ্রিল মাসে আগাম সংবাদ দিয়েছিল।

আপনার মতামত দিন