বান্দুরা বাসস্ট্যান্ডের সরকারি ইজারাভুক্ত জমি পরিমাপ করে সীমানা নির্ধারণ

153
বান্দুরা বাসস্ট্যান্ডের সরকারি ইজারাভুক্ত জমি পরিমাপ করে সীমানা নির্ধারণ

ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলায় পুরাতন বান্দুরা এলাকায় বাসস্ট্যান্ডের সরকারি ইজারাভুক্ত জমি পরিমাপ করে সীমানা নির্ধারণ করেছেন উপজেলা প্রশাসন। সোমবার নবাবগঞ্জ উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) অরুন কৃষ্ণ পাল সরকারি জমিটি সার্ভে করে লাল নিশানা টাঙিয়ে দেয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পুরাতন বান্দুরা মৌজার বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন আরএস ৯২৯ দাগে ৪৮ শতাংশ জমি মোলাসীকান্দা উদ্যোগী সংঘের এবং আরএস ৯২৮ দাগের পরিমান ৫৬ শতাংশ জমি সরকারি সম্পত্তি যেটি ইজারাকৃত বাসস্ট্যান্ড। সোমবার সরকারি ও ব্যক্তি মালিকানা সম্পত্তির দু’টি দাগের সীমানা নির্ধারণ করা হয়। যা দীর্ঘদিন ধরে সীমানা নিয়ে জটিলতার সৃষ্টি হয়ে ছিল।

নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এইচ এম সালাউদ্দীন মনজুর নির্দেশে বান্দুরা ইউপি চেয়ারম্যান ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে সোমবার দিনব্যাপী সার্ভে করে জমির সীমানা নির্ধারণ করে সরকারি জমির ইজারাদারকে বুঝিয়ে দেয়া হয়।

বান্দুরা মোলাসীকান্দা উদ্যোগী সংঘের সভাপতি রকৃত্তিক গমেজ বলেন, আমরা আমাদের ক্লাবের ৪৮ শতাংশ জমি বুঝে পেয়েছি।

বান্দুরা ইউপি চেয়ারম্যান হিল্লাল মিয়া বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এ দু”টি দাগের জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। প্রশাসনের হস্তক্ষেপে এখন তা সমাধান হলো।

অন্য খবর  পুরাতন বান্দুরা নবীন সেতু সংঘের সভাপতি সামাদের ইন্তেকাল

এ বিষয়ে নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচ এম সালাউদ্দীন মনজু বলেন, জমি পরিমাপ করে দুই দাগের সীমানা নির্ধারণের পর বাসস্ট্যান্ডের ইজারাদারকে জমি বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে।

আপনার মতামত দিন