নিউজ ৩৯ এ সংবাদ প্রকাশের পর ইটভাটাকে ৩লক্ষ টাকা অর্থদন্ড

134

দোহার উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডে উর্বর কৃষি জমি থেকে মাটি কেটে (টপ সয়েল) ইটের কাঁচামাল হিসেবে বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে ইট ভাটায় বিক্রি এবং পরিবেশ, প্রতিবেশ ও জীববৈচিত্র্যের ক্ষতি সাধন করায় দোহার উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃমামুন খান মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন এবং পবিসি ইট ভাটাকে ৩লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেন।

উল্লেখ্য, জানুয়ারি ২০২৪ এর ১২ ও ২০ তারিখে news39.net এর পক্ষ থেকে লাইভ সম্প্রচার করা হয়। এসময় জনদূর্ভোগ, সরকারি বিধি অমান্য করে মাটি কাটা, কৃষি জমি বিনষ্ট করাসহ পরিবেশগত বিপর্যয় ঘটনার উপর সরাসরি নিউজ করায় আজ প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

রবিবার, ২১ জানুয়ারি- দুপুরে দোহার উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের চরমাহমুদপর এলাকায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা এবং অপরাধ কার্যক্রম প্রতিরোধকল্পে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ মামুন খান।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে উর্বর কৃষি জমি থেকে মাটি কেটে (টপ সয়েল) কাঁচামাল হিসেবে বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে ইট ভাটায় বিক্রি এবং পরিবেশ, প্রতিবেশ ও জীববৈচিত্র্যের ক্ষতি সাধন করায় বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন, ২০১০ এর সংশ্লিষ্ট ধারায় হরিচণ্ডি এলাকায় এক ব্যক্তিকে এক লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়।

অন্য খবর  নবাবগঞ্জ হলিক্রসে শিল্পকলার শাখা উদ্বোধন

পিবিসি ইটভাটায় লাইসেন্স নবায়ন ব্যতীত ইট প্রস্তুত, কৃষি জমি থেকে মাটি কেটে ইটভাটায় ব্যবহার, কাঁচামাল হিসেবে মাটির ব্যবহার হ্রাস না করা, গ্রামীণ সড়ক ব্যবহার করে ভারী যানবাহন দ্বারা ইট ও কাঁচামাল পরিবহন, লাইসেন্সের বিভিন্ন শর্ত লঙ্ঘনসহ বিভিন্ন অভিযোগে ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন, ২০১৩ এর সংশ্লিষ্ট ধারায় পদ্মা ব্রিকস কোম্পানি (পিবিসি) নামক ০১টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ২,০০,০০০/-(দুই লক্ষ টাকা) অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। ২টি মামলায় সর্বমোট ৩,০০,০০০/-(তিন লক্ষ টাকা) অর্থদণ্ড প্রদান ও আদায় করা হয়।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে দোহার থানা পুলিশ সহযোগিতা করেন।

দোহার উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) মোঃ মামুন খান অভিযান পরিচালনাকালে সংশ্লিষ্ট সকলকে কৃষি জমি রক্ষা ও পরিবেশ সংরক্ষণে সরকারি নির্দেশনা প্রতিপালনে উদ্বুদ্ধ করেন ও পরিবেশ ও জীববৈচিত্র সংরক্ষণ ও উন্নয়নের স্বার্থে দোহার উপজেলায় এ ধরণের নিয়মিত অভিযান ও মনিটরিং অব্যাহত থাকবে বলে জানান।

আপনার মতামত দিন