দোহারে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি জাদুঘর অযত্নে আর অবহেলায়

736
দোহারে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি জাদুঘর অযত্নে আর অবহেলায়

 

ঢাকার দোহারে ঐতিহাসিক পোদ্দার বাড়ি যাকে ৭১ সালে দোহার ও নবাবগঞ্জের মুক্তিযোদ্ধাদের এই বাড়িতে ঘাটি ছিল। স্বাধীনতার ২ বছর পর সরকারী উদ্যোগে বাড়িটিকে মুক্তি যোদ্ধা স্মৃতি জাদুঘর ঘোষনা করে সরকার। দীর্ঘ ৪৩ বছর ধরে পরে আছে অযত্নে আর অবহেলায়।

জানা যায়, উপজেলার জয়পাড়া এলাকায় হিন্দু জমিদার পোদ্দার ৭১ সালে স্বাধীনতা সংগ্রামের সময় সহপরিবারে ভারতে পালিয়ে গেলে দোহার ও নবাবগঞ্জের মুক্তি যোদ্ধারা পৌদ্দার বাড়িতে ঘাটি স্থাপন করে। দেশ স্বাধীন হলে জমিদার পৌদ্দার ফিরে না এলে ৭৩ সালে বাড়িটিকে মুক্তি যোদ্ধা স্মৃতি জাদুঘর ঘোষনা করে সরকার। দীর্ঘ ৪৩ বছর ধরে সংস্কারে অভাবে ধষে পরছে বাড়িটির গায়ের সিমেটের আস্তর ইটা। হারিয়ে যেতে বসেছে ঐতিহাসিক ৭১ সালের স্বাধীনতা সংগ্রামের স্মৃতি।

স্থানীয় বাসিন্দা মোঃ জমির উদ্দিন মুন্সি (৭০) জানায়, ৭১ এ আমরা দোহার নবাবগঞ্জের ৩৫ বা ৪০ জন মুক্তিযোদ্ধা এই পোদ্দার বাড়ির ঘাটিতে ছিলাম। এখন আমাদের নাম বাদ দিয়ে দুই উপজেলায় প্রায় ১২ শত মুক্তিযোদ্ধার নামের তালিকা আছে।

এই ব্যাপারে দোহার উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সভাপতি রজ্জব আলী মোল্লা জানায়, জাদুঘরটির বিষয় নিয়ে আসলে কেউ ভাবেনা তবে সরকারের উচিত জাদুঘরটির দিকে নজর রাখা।

অন্য খবর  পদ্মার পানি বাড়ছেই; দোহার-নবাবগঞ্জে পানি বন্দি ৫হাজারের অধিক পরিবার

দোহার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কে এম আল-আমিন জানায়, এই ব্যাপারে মুক্তি যোদ্ধারা কেউ আমার কাছে আসেনি।

 

 

Comments

comments