দোহারে আলোকচিত্র প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ

42

শরিফ হাসান, স্টাফ রিপোর্টার, news39.net: দোহার উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে দোহারের ঐতিহ্য ও প্রকৃতি নিয়ে আয়োজিত আলোকচিত্র প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার, ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব এ এফ এম ফিরোজ মাহমুদ।

এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব এ এফ এম ফিরোজ মাহমুদ বলেন, এসব ছবিতে উঠে এসেছে দোহারের নৈসর্গিক প্রাকৃতিক দৃশ্য, সামাজিক, ইতিহাস ও ঐতিহ্য। দোহার উপজেলা প্রশাসন দ্রুতই দোহারে ইতিহাস ও ঐতিহ্য রক্ষার্থে পদক্ষেপ নিচ্ছে। আর এসব ছবি দিয়ে আমরা একটি আর্কাইভ করবো।
দোহারের ঐতিহ্যবাহী হাতে বুনা তাঁতের লুঙ্গি, যা জয়পাড়ার লুঙ্গি নামে সারাদেশে পরিচিত। আজ থেকে প্রায় দু’শত বছর আগে জীবন-জীবিকার তাগিদে খুব ভালোভাবেই গোড়াপত্তন হয়েছিল এ শিল্পের। সেসময় উপজেলার মোট জনসংখ্যার এক তৃতীয়াংশ লোক সরাসরি এ পেশার সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিল। দেশ স্বাধীনের আগে এ শিল্পের স্বর্ণযুগ ছিল।

তবে আশির দশকে মেশিনের সাহায্যে তৈরি লুঙ্গি কম দাম হওয়ায় মানুষজন ওদিকেই ঝুঁকতে থাকে। কিন্তু গুণাগুণের দিক বিবেচনা করলে হাতের সাহায্যে বুনানো লুঙ্গি সবদিক থেকেই উন্নত। যে কারণে রুচিশীল মানুষের কাছে প্রথম পছন্দ দোহারের তাঁতের সাহায্যে বুনা লুঙ্গি। নানা প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবেলা করে অতীত ঐহিত্যকে ধরে রেখে এখনো তৈরি হচ্ছে দোহারের হাতে বুনা তাঁতের লুঙ্গি।

অন্য খবর  দোহারের চরকুশাই গ্রামে নদীতে গোসল করতে নেমে ২ শিশু নিখোঁজ

দোহার উপজেলা প্রশাসন দোহারের এই ঐতিহ্যবাহী তাঁতের লুঙ্গি ইতোমধ্যেই উপজেলা ব্রান্ডিং হিসেবে গ্রহণ করেছে এবং এই ঐতিহ্যকে ধরে রাখার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।

পুরস্কার বিজয়ী ও নিউজ৩৯ এর বার্তা সম্পাদক মাসুম পারভেজ রবিন বলেন, নিজ এলাকায় নিজ মাতৃভূমির জন্য এরকম পুরস্কার নিঃসন্দেহে আনন্দায়ক। এটি সামনে দোহারে ইতিহাস ও ঐতিহ্য রক্ষার্থে আরও ভালো কাজের জন্য প্রেরণাদায়ক হবে বলে, আমি বিশ্বাস করি।

প্রতিযোগিতায় বিজয়ীরা হলেন ১ম স্থানঃ জনাব আতিকুর রহমান রাফিন, পশ্চিম লটাখোলা, দোহার পৌরসভা, দোহার, ঢাকা; ২য় স্থানঃ জনাব মু মাসুম পারভেজ, উত্তর জয়পাড়া কুঠিবাড়ি, দোহার, ঢাকা; ৩য় স্থানঃ জনাব বিল্লাল মাহমুদ, মাহমুদপুর, দোহার, ঢাকা; ৪র্থ স্থানঃ জনাব অশ্রু দেওয়ান, পশ্চিম লটাখোলা, দোহার, ঢাকা; ৫ম স্থানঃ জনাব মোঃ রাকিব হোসাইন, দোহার, ঢাকা; ৬ষ্ঠ স্থানঃ জনাব তাফসির আহমেদ খান, দক্ষিণ শিমুলিয়া, নারিশা, দোহার, ঢাকা; ৭ম স্থানঃ জনাব আবির মাহমুদ, উত্তর জয়পাড়া, দোহার পৌরসভা, দোহার, ঢাকা; ৮ম স্থানঃ জনাব সিয়াম হোসাইন, জয়পাড়া গাঙপাড়, দোহার, ঢাকা; ৯ম স্থানঃ জনাব ইমন আফনান আফিফ, কার্তিকপুর, দোহার, ঢাকা; ১০ম স্থানঃ জনাব সাজিদ ইসলাম অর্ক, দোহার, ঢাকা; ১১তমঃ জনাব আবু ফাহাদ সৈকত, দক্ষিণ জয়পাড়া, দোহার, ঢাকা; ১২তমঃ জনাব আরিফ হোসাইন, দোহার ঢাকা।

অন্য খবর  দোহারের মইতপাড়ায় জোর পূর্বক জমি দখলের চেষ্টা

প্রতিযোগিতায় ২য় স্থান অর্জন করেছেন নিউজ৩৯ এর বার্তা সম্পাদক ও বিডিজবস২৪ এর এক্সিকিউটিভ অফিসার মাসুম পারভেজ রবিন।আলোকচিত্র শিল্পী হিসাবে মাসুম পারভেজ রবিন এর আগে দুটি আন্তর্জাতিক এক্সিবিশনে অংশ নিয়েছিলেন। এইগুলো হলো 150 Snaps Photo Contest & Exhibition Season-2, 2016 ও “Chittagong Hill Tracts: People and Nature” দৃক গ্যালারি।

দোহার উপজেলা প্রশাসনের আয়োজিত এই আলোকচিত্র প্রতিযোগিতায় দোহারের ১০০ জন আলোকচিত্রীর প্রায় পাঁচ শতাধিক ছবি জমা পড়ে। প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন আন্তর্জাতিক পুরস্কারপ্রাপ্ত আলোকচিত্রী জনাব পিনু রহমান।

মন্তব্য