দেশপ্রেমে বিএনপি কখনো আপস করেনিঃ খন্দকার আবু আশফাক

42

শরিফ হাসান ও ফয়সাল হোসেন, স্টাফ রিপোর্টার, news39.net: বিএনপির ৪৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ঢাকা জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে চন্দ্রিমা উদ্যানে দলের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ এবং ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক।
খন্দকার আবু আশফাক দলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী দোহার-নবাবগঞ্জে সরবভাবে কেন পালিত হচ্ছে না জানতে চাইলে বলেন, একটা ফ্যাসিস্ট সরকার জনগণের ঘাড়ে চেপে বসেছে। এরা বিনাভোটে নির্বাচিত বলে, জনগণের প্রতি এদের স্বচ্ছতা ও দায়বদ্ধতা নেই। আর জনগণের সেবক পুলিশ বাহিনীকে আজ এই সরকার নিজের স্বার্থে দলীয় বাহিনীতে পরিণত করেছে। অথচ এইদেশের জনগণের টাকায় পুলিশ বাহিনীসহ সকল সরকারি কর্মকর্তার বেতন দেয়া হয়। তাদের নিরপেক্ষ থাকার কথা। কিন্তু আজ দোহার নবাবগঞ্জ উপজেলায় যেখানেই বিএনপির কোন প্রোগ্রাম থাকে, সেখানে আজ পুলিশ হানা দেয়। অথচ এটা আমাদের সাংবিধানিক এবং রাজনৈতিক অধিকার। ভবিষ্যতে এরকম হলে বিএনপি প্রতিরোধ করবে। এই প্রতিকূল পরিবেশেও আমরা দলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীসহ দলীয় প্রোগ্রাম বাস্তবায়ন করছি।
আবু আশফাক আরও বলেন, আমি রাজনীতিতে এসেছিলাম শহীদ জিয়াউর রহমানের আদর্শের পতাকা হাতে নিয়ে। আমার সংগ্রাম শুরু হয়েছিলো একটা সুখী – সমৃদ্ধ জনপদরুপে দোহার-নবাবগঞ্জ গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে। আমি রাজনীতিতে যোগ দিয়ে দেশ ও জনগণের ভাগ্যের সঙ্গে নিজের ভাগ্যকে একাকার করে ফেলেছি।
আমার নিজের কোনো পৃথক আশা-আকাঙ্ক্ষা নেই। দোহার-নবাবগঞ্জের জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষাই আমার আশা-আকাঙ্ক্ষায় পরিণত হয়েছে। আমার জীবন পুরোপুরি জড়িয়ে গেছে এদেশের মানুষের স্বপ্ন ও প্রত্যয়ের সঙ্গে। তাদের সুখ-দুঃখ ও উত্থান-পতনের সঙ্গে। দেশের মানুষের জীবনের চড়াই-উৎরাই ও সমস্যা-সংকটের সঙ্গে। তাদের বিজয়, বিপর্যয় এবং সম্ভাবনা ও সমৃদ্ধির সঙ্গে। দেশপ্রেম ও জনগণের অধিকারের ক্ষেত্রে আমাদের কারো সাথে কোন আপস নাই।

অন্য খবর  ঢাকা-১ আসনে সালমা ইসলামকে সমর্থনের ঘোষণা বিএনপির

তিনি বলেন, চেতনার অগ্নিশিখা আপোষহীন দেশনেত্রী,মাদার অব ডেমোক্রেসি, বাংলাদেশের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির মধ্য দিয়ে এদেশের জনগণ প্রকৃত মুক্তির স্বাদ পাবে।

মন্তব্য