দোহার-নবাবগঞ্জে উন্নয়নে রেকর্ড গড়েছিল জাতীয় পার্টি: সালমা ইসলাম

406

স্টাফ রিপোর্টার ♦ বৃহস্পতিবার বিকালে ঢাকা জেলার দোহার উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নে চরলটাখোলা গ্রামে জাতীয় পার্টিতে বিপুলসংখক নারী-পুরুষের যোগদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য, যুগান্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি বলেন, দোহার-নবাবগঞ্জে উন্নয়নে রেকর্ড গড়েছিল জাতীয় পার্টি।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন দোহার উপজেলার জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক ডা. আলাউদ্দিন। প্রধান অতিথির সফরসঙ্গী ছিলেন জাতীয় পার্টির নেতা শরফুদ্দিন আহমেদ শরীফ, জাতীয় যুব সংহতির সাবেক কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা জেলা ছাত্রসমাজের সভাপতি মশিউর রহমান খান তাপস, উপজেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ হুমায়ুন কবির, যুগ্ম আহ্বায়ক জুয়েল আহম্মেদ, মহিলা পার্টির নেত্রী আইরিন গমেজ।

প্রধান অতিথি অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি দেশের বর্তমান পরিস্থিতি, এরশাদের ৯ বছরের শাসনামল ও অবহেলিত নবাবগঞ্জের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বলেন, জাতীয় পার্টি ক্ষমতা ছাড়ার পর ২১ বছরে দেশে তেমন কোন উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। আবারও সাধারণ জনগণ জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় আনতে চায়।

তিনি বলেন, আপনারা আমাকে ও জাতীয় পার্টিকে সহযোগিতা করুন। আমার ব্যক্তিগত অর্থ ও সরকারি অর্থের বরাদ্দ দিয়ে এলাকার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছি। তিনি তা ধরে রাখতে এলাকাবাসীর প্রতি ঐক্যবদ্ধভাবে জাতীয় পার্টিকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান। অবহেলিত গ্রামীণ অবকাঠামো, মসজিদ, মন্দির, কবরস্থান ও শিক্ষাখাতে উন্নয়ন করা না হলে দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়। আর ৯ বছরের শাসনামলে রাস্তাঘাট, ব্রিজ-কালভার্টসহ সারাদেশে উন্নয়নে রেকর্ড গড়েছিল জাতীয় পার্টি। আজ অবহেলিত দোহার-নবাবগঞ্জ উপজেলার উন্নয়ন আমার স্বপ্ন।

অন্য খবর  জয়পাড়ায় গুণীজন সংবর্ধনায় নায়ক আলমগীর

অনুষ্ঠানে দুই শতাধিক নারী-পুরুষ অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপির হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে জাতীয় পার্টিতে স্বতঃস্ফূর্তভাবে যোগদান করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আবদুল আলিম, মেহেদি হাসান মিলন, ওহাব তালুকদার, ডা. মোশারফ হোসেন, ডা. আবদুল হাকিম, জামাল উদ্দিন আহম্মেদসহ দোহার উপজেলা জাতীয় পার্টির মূলদল, যুবসংহতি, ছাত্রসমাজসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

আপনার মতামত দিন