চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে এন মল্লিকের পুড়ে যাওয়া বাসে

এ বছরের ২৫ এপ্রিল ভয়াবহ আগুন দূর্ঘটনায় এন মল্লিকের প্রায় ১০-১২ টি বাস পুড়ে যায়। সাথে বান্দুরা স্ট্যান্ডের প্রায় ১২-১৪ দোকানও সেই সাথে পুড়ে যায়। যদিও এটি কি দূর্ঘটনা নাকি পরিকল্পিত তা নিয়ে রয়েছে দ্বন্দ্ব।

169
News39.net: এ বছরের ২৫ এপ্রিল ভয়াবহ আগুন দূর্ঘটনায় এন মল্লিকের প্রায় ১০-১২ টি বাস পুড়ে যায়। সাথে বান্দুরা স্ট্যান্ডের প্রায় ১২-১৪ দোকানও সেই সাথে পুড়ে যায়। যদিও এটি কি দূর্ঘটনা নাকি পরিকল্পিত তা নিয়ে রয়েছে দ্বন্দ্ব। অনেকে বলছেন দূর্ঘটনা আবার অনকে এটাকে প্রতিপক্ষের কাজ বলে সন্দেহ করেছেন। পুড়ে যাওয়ার কিছুদিন পরই প্রশাসন এন মল্লিকের সব বাস স্ট্যান্ড থেকে সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেয়। এন মল্লিক কর্তৃপক্ষ মহব্বতপুরের ভাড়া করা জায়গায় তাদের সব বাস একত্রিত করে রাখে। কিন্তু পুড়ে যাওয়া বাসগুলোর বেশির ভাগই বান্দুরা-ঢাকা সড়কে ফেলে রাখে। ফলে অন্যান্য বাস, ট্রাক, রিক্সা ও অটোরিকশা যাতায়াতে সমস্যা দেখা দিচ্ছে। পুড়ে যাওয়া বাসগুলো রাস্তার প্রায় অর্ধেক দখল করে রেখেছে। এতে দুইটি গাড়ি একসাথে হলেই বা ক্রস করতে বেশ সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। এভাবে রাস্তায় অকেজো হয়ে পড়ে থাকা বাসগুলো আর কতদিন পড়ে থাকবে প্রশ্ন ভুক্তভোগী জনসাধারণ ও গাড়ি চালকদের। উল্লেখ্য এন মল্লিক পরিবহন ও বিআরটিসি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দ্বন্দ্ব চলছিল।

মন্তব্য