করোনায় মৃতদের পাশে দোহার যুবলীগের ‘মানবিক টিম’

75
করোনায় মৃতদের পাশে দোহার যুবলীগের ‘মানবিক টিম’

বিশ্ব করোনা মহামারিতে প্রাণের বাংলাদেশ যখন উদ্বিগ্ন; মৃত্যুর মিছিল যখন বড় হচ্ছে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে স্ত্রী-সন্তান স্বজনরা যেখানে প্রিয় মানুষটির লাশ স্পর্শ করতে ভয় পাচ্ছে । সেই মুহূর্তে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ এবং সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের নির্দেশে মাঠে নেমেছে মাঠ পর্যায়ের যুবলীগের নেতাকর্মীরা। ঢাকা জেলা যুবলীগের আহ্বানে দোহার উপজেলা যুবলীগ নিয়েছে ব্যতিক্রমী এক উদ্যোগ। করোনা মহামারিতে মৃত ব্যক্তিদের সৎকার করার দায়িত্ব নিয়েছে দোহার উপজেলা যুবলীগ।

করোনা মহামারিতে মৃত ব্যক্তিদের লাশ সৎকারের জন্য ইসলাম ও হিন্দু ধর্মালম্বিদের জন্য আলাদা আলাদা টিম গঠন করেছে দোহার উপজেলা যুবলীগ। দোহার উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. আলমাস উদ্দিন(ভিপি আলমাস), সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান আকন্দ এই কার্যক্রমের সার্বিক তত্ত্ববধান করছেন। এবং একই সাথে কার্যকরী সদস্যসহ আলাদা আলাদা স্বেচ্ছাসেবী টিম গঠন করা হয়।

মাসুদ মোল্লাকে টিম লিডার এবং মুফতি মো. নুরুল ইসলামকে সার্বিক সহযোগিতা করে ১১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। অন্যান্য সদস্যরা হলেন- মোশাররফ হোসেন, সাদ্দাম হোসেন রাজীব, পবন মল্লিক, শিপন মাহমুদ, আসলাম আকন্দ, শেখ শহীদ, আলী আকবর, মো. শাহজাহান ও চন্দন কর্মকার। রাত যখন গভীর সবাই নিদ্রাচ্ছন্ন মানবিক যুবলীগ দোহার উপজেলা তখন করোনা উপসর্গের মৃতদেহ কাঁধে নিয়া কবরস্থানের দিকে।

অন্য খবর  খালেদা জিয়ার জনসভায় খন্দকার আবু আশফাক

৬ই আগস্ট পবিত্র জুমার দিনে মানবিক যুবলীগ টিম দোহার ফজরের নামাজের পর ভোরবেলা সবাই উপস্থিত কুসুমহাটী ইউনিয়নের ইকরাশী (পুষ্পখালী সংলগ্ন) গ্রামে করোনায় আক্রান্ত মৃত সেলিম বেপারীর মৃতদেহ স্বজনদের সহযোগিতায় দাফন কাজ সম্পন্ন করে মানবিক যুবলীগ টিম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুসুমহাটী ইউনিয়নের  চেয়ারম্যান  আমজাদ হোসেন আজাদ।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে উত্তর জয়পাড়া শাহেববাজার সংলগ্ন ময়না আক্তার (মুন্সি বাড়ি) স্বামী আক্কাছ উদ্দিন করোনা উপসর্গ নিয়ে রাত সাড়ে ৯টায় মৃত্যুবরণ করেন। নিহতের স্বজনরা মানবিক যুবলীগ টিমকে জানালে স্বজনদের সহযোগিতা নিয়ে মরহুমাকে রাত ৩টায় উত্তর জয়পাড়া কবরস্থানে দাফন করে।

বৃহস্পতিবার উপজেলার পশ্চিম সুতারপাড়া এলাকায় জুলেখা বেগম নামে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়। করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ায় ভয়ে মৃত ব্যক্তির দাফনে অনীহা প্রকাশ করে প্রতিবেশী ও স্বজনরা। জুলেখার দুই ছেলেই প্রবাসে থাকায় বাড়িতে কোনো পুরুষও ছিলেন না। এমন খবর পেয়ে ওই বৃদ্ধার বাড়িতে গিয়ে তার দাফন কাজ সম্পন্ন করে উপজেলা যুবলীগের গঠিত ‘মানবিক টিম’।

দোহার উপজেলার যুবলীগের সভাপতি আলমাছ উদ্দিন বলেন, মৃত ব্যক্তির দুই ছেলেই প্রবাসে। করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ায় ভয়ে এগিয়ে আসেনি প্রতিবেশী ও স্বজনরা। আমরা খবর পেয়ে স্বেচ্ছায় মৃত ব্যক্তির দাফন করেছি। আমাদের উপজেলা যুবলীগের ‘মানবিক টিম’ এখন থেকে এ কাজের ধারাবাহিকতা ধরে রাখবে।

অন্য খবর  দোহারে মহিলা লীগের নতুন কমিটি ঘোষনা

এ ব্যাপারে দোহার উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান আকন্দ বলেন, দোহার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুণ ও দোহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আহসান খোকন ভাই আমাদেরকে সুরক্ষা সামগ্রী দিয়েছেন। মানবিক টিমের কার্যক্রম সকলের সহযোগিতায় অব্যাহত থাকবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএফএম ফিরুজ মাহমুদ বলেন, উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে করোনাকালীন সময়ে যখন আত্মীয়স্বজনরা মৃত ব্যক্তিকে দাফন করতে ভয় পেয়ে দূরে চলে যায়, তখন মানবিক যুবলীগ টিম সেই দুঃসময়ে নিজেদের কাঁধে দায়িত্ব তুলে নেয়। আমি তাদেরকে  সার্বিক সহযোগিতার জন্য পাশে আছি।

আপনার মতামত দিন