উদ্বোধন উপলক্ষে প্রথম দিন যাত্রীদের ফ্রি যাতায়াতের সুবিধা

251

ঢাকার দোহার উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের মিনি কক্সবাজার খ্যাত মৈনটঘাট থেকে ফরিদপুরের চরভদ্রাশন গোপালপুর লঞ্চ সার্ভিসের শুভ উদ্ভোদন করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায় দিকে প্রথমে দোহারের মিনি কক্সবাজার খ্যাত মৈনট ঘাটে এই লঞ্চ সার্ভিসের শুভ উদ্ভোদন করা হয়। পরে বেলা সাড়ে ১২টায় ফরিদপুরের চরভদ্রাশনের গোপালপুরে এর উদ্বোধন করা হয়। লঞ্চ সার্ভিসটি উদ্বোধন করেন বিআইডব্লিউটিএ এর অতিরিক্ত পরিচালক একেএম আরিফ উদ্দিন।

উদ্ভোদনের পর নারিশা এস্কেপ্রেস নামে প্রথম লঞ্চটি ছেড়ে যায় দোহারের মৈনটঘাট থেকে লঞ্চের চালক মাহাবুব শেখ বলেন, আমার বাসা মুন্সিগঞ্জের সিরাজ দিঘী খান উপজেলায়। আমি প্রায়৩৫ বছর ধরে লঞ্চ চালাচ্ছি আমার জীবনের বেশীর ভাগ সময় নদীতেই কেটে গিয়েছে। পদ্মাসেতু হওয়ার পর আমরা আমাদের লঞ্চ নিয়ে বসে ছিলাম সে সময় অনেক কষ্ট করেছি। কিন্তু এখন এখান দিয়ে লঞ্চ চালু হওয়ার ফলে আমাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হবে বলে আমি মনে করচ্ছি।

পারাপারের যাত্রীরা জানান, এই লঞ্চ সার্ভিস চালু হওয়াতে এখন আমাদের জন্য সুবিধা হল। আগে অনেক টাকা দিয়ে এই নদী পথ পারি দিতে হত। আবার স্পিডবোটে গেলেও যাত্রী জন্য বসে থাকতে হত। এখন আমাদের দূর ভোগ কমে যাবে বলে আমরা মনে করছি। সেই সাথে ধন্যবাদ জানাই এর সাথে জড়িত সকলকে।

অন্য খবর  দোহারে আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ মিছিল

সে সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিআইডব্লিউটিএ এর অতিরিক্ত পরিচালক একেএম আরিফ উদ্দিন বলেন, মৈনট ও চরভদ্রাশনের গোপালপুর ঘাট বাস্তবায়নে দোহার-নবাবগঞ্জের এমপি সালমান এফ রহমান ও চরভদ্রাশনের এমপি মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন এর ভূমিকা রয়েছে। তাদের প্রচেষ্টাই এ ঘাটটি চালু করতে পেরেছি।

তিনি আরো বলেন,ফরিদপুর উপজেলার সদরপুর, চরভদ্রাশন, নাগরকান্দা ও দক্ষিণাঞ্চলের অনেক উপজেলার মানুষের রাজধানীতে যাতায়াতের সুবিধার্থে ফরিদপুরের চরভদ্রাশনের গোপালপুর থেকে ঢাকার দোহারের মৈনট ঘাট পর্যন্ত লঞ্চ সার্ভিসের সিদ্ধান্ত নেয় বিআইডব্লিউটিএ । এর জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে ১১টি লঞ্চ। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৫টা পর্যন্ত দু’টি টার্মিনাল থেকে গন্তব্যের উদ্দেশে ছাড়বে লঞ্চ। ঘাটটি শিমুলিয়া নদী বন্দরের আওতাভুক্ত থাকবে।
ভাড়া বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন উদ্বোধন উপলক্ষে প্রথম দিন যাত্রীদের ফ্রি যাতায়াতের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। এবং ভাড়ার ব্যাপারে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। আমরা অতি দ্রুত সিদ্ধান্ত নিয়ে সকলকে জানাবো।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিআইডব্লিউটিএ এর যুগ্ম পরিচালক ট্রাফিক এনামুল হক ভূঁইয়া, উপ পরিচালক ও পরিবহন বিভাগ মোঃ মিজানুর রহমান, স্থানীয় পোর্ট অফিসার মামুন উর রশিদ, শিমুলিয়া নদী বন্দরের লঞ্চ মালিক সমিতির সভাপতি বিএম আতাউর রহমান আতা, সাধারন সম্পাদক মোঃ মনিরুজ্জামান মনির সহ আরো অনেকে।

অন্য খবর  দোহারের নারিশায় পদ্মায় বিলীন ১৪ টি বাড়ি

মন্তব্য