আটকে যাওয়া কর্মীদের নিতে মালয়েশিয়াকে প্রতিমন্ত্রীর আবেদন 

5
আটকে যাওয়া কর্মীদের নিতে মালয়েশিয়াকে প্রতিমন্ত্রীর আবেদন 

ভিসা ও ওয়ার্কপারমিট থাকার পরেও যেসব বাংলাদেশি কর্মী মালয়েশিয়ায় যেতে পারে নি তাদের যাওয়ার সুযোগ দিতে দেশটির সরকারের কাছে আবেদন জানানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী।

বুধবার প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার হাজনাহ মোহাম্মদ হাশিমের সঙ্গে এক সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘আমরা আশা করছি, মালয়েশিয়া এ আবেদন বিবেচনা করবে।’

এ সময় মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার হাজনাহ মোহাম্মদ হাশিম বলেন, ‘মালয়েশিয়া আন্তরিকভাবে বিশ্বাস করে বাংলাদেশ বন্ধুপ্রতীম দেশ। মালয়েশিয়া ও বাংলাদেশের রয়েছে ঐতিহাসিক সম্পর্ক। বাংলাদেশের এ সময় বৃদ্ধির আবেদন বিবেচনার জন্য আমাদের সরকারকে জানাব।’

নতুন করে তারিখ বাড়ানোর বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ আন্তরিকভাবে বিশ্বাস করে, মালয়েশিয়া বাংলাদেশের বন্ধুপ্রতীম দেশ। বন্ধুপ্রতীম দুই দেশের মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক আরও জোরদার হবে। আমার বিশ্বাস, মালয়েশিয়া এ আবেদন বিবেচনা করবে।’

এদিকে গত মঙ্গলবার সরকারের এক গণবিজ্ঞপ্তিতে, যেসব কর্মী মালয়েশিয়া যেতে পারেন নি তাদের অভিযোগ জানাতে বলা হয়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘আমাদের মন্ত্রণালয় থেকে আমরা ছয় সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করেছি। কোন কারণে কর্মীরা যেতে পারেনি। কোথায় সমস্যা হয়েছে, কাদের দ্বারা এই সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। এ সমস্ত জিনিস খুঁজে বের করার জন্যই আমরা তদন্ত কমিটি করেছি। এই তদন্ত কমিটির মাধ্যমে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আসবে, যারা দোষী সাবস্ত হবে তাদের বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।’

অন্য খবর  দোহারে প্রথম প্রবাসীদের সংবর্ধনা

বিএমইটির ছাড়পত্র না পাওয়া কর্মীদের কি হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘যারা মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য আবেদন করেছেন, বিভিন্ন রিক্রুটিং এজেন্সির সঙ্গে যোগাযোগ করেছে এবং যারা এজেন্টের মাধ্যমে যাওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছে, এমনকি যারা ভিসা পায়নি, তাদের ব্যাপারেও আমাদের মন্ত্রণালয় বিবেচনা করবে। তাদের কিভাবে ক্ষতিপূরনের ব্যবস্থা করা যায়, সে ব্যাপারেও কাজ চলছে। এ বিষয়ে আমরা অত্যন্ত আন্তরিক। মালয়েশিয়ায় যাওয়ার ব্যাপারে যারা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে তাদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।’

আপনার মতামত দিন