তরুনদের ভাবনাঃ নিয়ম মেনে না চললে করোনা থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে না

195

বিশ্বজুড়ে এখন সবথেকে বড় আতঙ্কের নাম করোনা ভাইরাস। বাংলাদেশ সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এই ভাইরাসের আক্রমণে আজ থমকে দাঁরিয়েছে।২০২০ সালটা যেন পৃথিবী নামক গ্রহটির জন্য অভিশাপ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমার মতে এটি বিবর্তনের ফল। চার্লস ডারউইনের বিবর্তনতত্ত্বে বলা হয়েছে যোগ্যতমরাই পৃথিবীতে টিকে থাকতে পারে। covid-19 যেহেতু একটি সংক্রামক রোগ তাই এটি খুব সহজেই একজন মানুষকে আক্রমণ করতে পারে। এটিকে ভয় না পেয়ে নিজেদের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে হবে। সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে চলাচল করতে হবে। প্রয়োজন না হলে বাইরে যাওয়া যাবে না। অবশ্যই সাবান দিয়ে বার বার হাত ধুতে হবে। খাবার এর প্রতি খেয়াল রাখতে হবে এবং ভিটামিন সি যুক্ত ফলমূল খেতে হবে।

যদিও এখন আমাদের দেশে করেনা সংক্রমন দ্রুত বেড়েই চলেছে তারপরও আমাদের একটু সচেতনতা এই রোগ থেকে আমাদের মুক্তি দিতে পারে। covid-19 শুধু আর্থনৈতিক দিক থেকে আমাদের ধংস্ব করেনি আমাদের মতো ছাত্রছাত্রী দের জন্যও এটি ব্যাপক সমস্যার সৃষ্টি করছে।আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যেহেতু বন্ধ সেক্ষেত্রে আমরা অনেকটা পিছিয়ে পরেছি। কিন্তু আমরা যদি নিজেরা নিজেদের পড়ালেখা নিয়ে সচেতন হই এটা আমাদের খুব বেশি সমস্যার সৃষ্টি করবে না। দোহার নবাবগঞ্জেও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ইতিমধ্যে বেড়েই চলেছে। আমি মনে করি এটা দোহার নবাবগঞ্জ বাসির অসচেতনতার ফল। আমরা যদি এখন থেকে কঠোরভাবে নিয়মগুলি মেনে চলি তাহলে দোহার নবাবগঞ্জ এ covid-19 রোগীর সংখ্যা আর বাড়বে না। আমরা খুব দ্রুত স্বাভাবিক জীবনযাপনে ফিরে যেতে পারব।

অন্য খবর  স্মৃতিতে উজ্জ্বল আজও তাহার মুখ (প্রয়াত সৈয়দ স্যার)

নাঈমা জাহান নিটোল

পদার্থবিজ্ঞান বিভাগ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়।

কলাকোপা, নবাবগঞ্জ, ঢাকা।

Comments

comments