ইউপি সদস্য সামাদ মৃধার নেতৃত্বে-প্রশাসনের নাকের ডগায় চলছে চাঁদাবাজি

822
ইউপি সদস্য সামাদ মৃধার নেতৃত্বে-প্রশাসনের নাকের ডগায় চলছে চাঁদাবাজি

দোহার-নবাবগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের দোহারের বাঁশতলায় সড়কের উপর সংগঠনের নামে ব্যাপক চাঁদা আদায় করছে ঢাকা জেলা ট্রাক ট্যাংক লরি, কার্ভারভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন নামের একটি সংগঠন। এ সংগঠনটি প্রতিদিন অবৈধ্য ভাবে আদায় করছে হাজার হাজার টাকা।

রাস্তার সামনে  দাঁড়িয়ে ট্রাক শ্রমিক পরিবহনের পঙ্গু ও অসহায় শ্রমিকদের নাম করে ইদ্রিসসহ কয়েকজন যুবক মিলে প্রতিদিন এক একটি ট্র্যাক থেকে ৩০ টাকা করে চাঁদা আদায় করছে বলে বিভিন্ন ট্রাকচালক অভিযোগ করেছেন।

এ বিষয়ে শ্রমিক ইদ্রিসের কাছে জানতে চাইলে ট্রাক ট্যাংক লরি ক্যাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি কার্তিকপুর গ্রামের সামাদ মৃধার নির্দেশে চাঁদা তুলছে বলে নিউজ৩৯-কে জানায় ইদ্রিস। তবে সামাদ মৃধা চাঁদা আদায়ের ব্যাপারে বৈধ কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেন নি।

জয়পাড়া-কার্তিকপুর-বাহ্রা ঘাটে প্রবেশ পথ বাঁশতলা মোড়ে বাসস্ট্যান্ডে  ট্রাকের চাঁদা আদায়কালে ৩০ টাকার স্থলে এক ড্রাইভার ২০ টাকা দেয়ায় তাকে চাঁদা আদায়কারী কর্তৃক মারতে দেখা যায়। চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে শুনতে হচ্ছে গালিগালাজ। মাঝে মধ্যে চালকদের গায়ে হাত তুলতেও দ্বিধা করছে না তারা। তাই অনিচ্ছা স্বতেও বাধ্য হচ্ছে চাঁদা দিতে হচ্ছে। চাঁদাবাজদের হাত থেকে রেহাই পাচ্ছে না ওষুধ কোম্পানির ট্রাকও।

অন্য খবর  নবাবগঞ্জে সোনালী আঁশ পাট নিয়ে ব্যস্ত কৃষকরা

এ বিষয়ে দোহারের জেলা ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি এবং মাহমুদপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য সামাদ মৃধা বলেন,” আমি পঙ্গু ও অসহায় ট্রাক শ্রমিকের জন্য ট্রাক প্রতি ৩০ টাকা করে চাঁদা নিয়ে থাকি। আমাদের বৈধ্য কাগজপত্র ও প্রশাসনের অনুমতি নিয়েই টাকা উত্তোলন করছি ’’। কিন্তু সাংবাদিকরা প্রশাসনের অনুমতির কাগজপত্র দেখতে চাইলে তিনি তা দেখাতে পারেন নি।

এ বিষয়ে দোহার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কে.এম.আল-আমীন জানান, ”বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে, যদি অবৈধভাবে টাকা তোলার প্রমান পাওয়া যায় তবে এ বিষয়ে আমরা দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করব ”।

Comments

comments