রাজনৈতিক কারণে গৃহবধুকে যৌন হয়রানি ও প্রাণনাশের চেষ্টা

306

 

আসিফ৩৯;০৩।০৭।২০১১ঃঢাকা জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলার শিকারিপাড়া গ্রামে গত মঙ্গলবার (জুন,২৮) দুপুর ১২টার দিকে প্রকাশ্যে রাস্তায় এক গৃহবধুকে যৌন হয়রানি ও প্রাণনাশের চেষ্টা করেছে স্থানীয় বখাটেরা। ব্যাপারটি তার স্বামীর সাথে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে ঘটেছে বলে অভিযোগ করেন নির্যাতিত গৃহবধূ। প্রত্যক্ষদর্শীরা নিউজ৩৯ কে জানান, গৃহবধূ শারমিন সুলতানা(২৬) শিকারিপাড়া বাজারে যাওয়ার সময় স্থানীয় ছাত্রলীগ ক্যাডার মিণ্টু(২৫), রিপন(২৮), পবন(৩০) সহ আরও কয়েকজন তার পথ আটকায়। এ সময় তারা শারমিনের স্বামী আসাদ–উজ-জামান (শিকারিপাড়া ইউনিয়ন যুবদল প্রচার সম্পাদক) কোথায় আছে জানতে চায় । উল্লেখ্য আসাদ –উজ- জামান শিকারিপাড়া ইউনিয়ন ভোট কেন্দ্রে নির্বাচনী সংঘর্ষের পর থেকে পলাতক রয়েছে। বখাটেরা শারমিনকে জড়িয়ে ধরে এবং তাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালায়। শারমিন বাচার জন্য চিৎকার দেয়। এতে আশে-পাশের লোকজনের ছুটে এলে মিণ্টু ও তার সঙ্গীরা তাকে ফেলে দৌড়ে চলে যায়। এ সময় স্থানীয় মুরুব্বী ও আওয়ামিলীগের নেতারা বিষয়টি দেখবেন বলে মৌখিক আশ্বাস দেন। নিউজ৩৯ এর পক্ষ থেকে মিণ্টু’র মোবাইলে ফোন করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়। এদিকে ২/৩ দিনে বিষয়টি সুরাহা না হওয়ায় শারমিন সুলতানা নবাবগঞ্জ থানায় বৃহস্পতিবার জিডি করতে গেলে স্থানীয় প্রশাসন মামলাটি নেয়নি বলে অভিযোগ করেন তার আত্মীয় স্বজনেরা। পরবর্তীতে ২রা জুলাই মিণ্টু ও তার সঙ্গীরা থানায় যাওয়ার কারণে শারমিন ও তার পরিবারের লোকদেরকে বাড়ীঘর ভাংচুরসহ মারধর করে এবং আবার থানায় যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দেয়। বর্তমানে গুরুতর আহত অবস্থায় শারমিনকে নবাবগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ ব্যাপারে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। 

Comments

comments