আধিপত্য বিস্তারের সংঘর্ষে ৪ মাছ ব্যবসায়ী আহত

374
সংঘর্ষে মাছ ব্যবসায়ী আহত

ঢাকার দোহার উপজেলার মেঘুলা বাজারের নদীর পাড়ে মাছের দুই আরতদারের দ্বন্দ্ব থেকে সৃষ্ট সংঘর্ষে ৪ মাছ ব্যবসায়ী আহত হয়েছেন। মাছ ক্রয়-বিক্রয় নিয়ে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে দুই পক্ষের হাতাহাতি হয়, এতে মাছ ব্যবসায়ীরা আহত হন।  সোমবার ২২শে ডিসেম্বর সকাল ৭ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়। এ বিষয়ে দোহার থানায় পাল্টা-পাল্টি অভিযোগ করেছে দুই পক্ষ।

আহতরা হচ্ছে সুতারপাড়া ইউনিয়নের মধুরচর গ্রামের দেলোয়ার মোল্লা (৫০) পিতা: আ. খালেক মোল্লা,কাদের শেখ (৩৬) পিতা:আয়নাল শেখ, ঝন্টু পিতা: আবেদ আলী, সাং মালিকান্দা, আবির মোল্লা (২৫) পিতা: দেলোয়ার মোল্লা।

দেলোয়ার মোল্লা জানান, আমার ছেলে আবির মোল্লাকে মাছ দিতে আসে এক জেলে সেই মাছ জোর করে নিয়ে বিক্রি করছে শামীম মোল্লা। একটু পরে আরও এক জেলে আমাদের মাছ দিতে আসলে সেগুলোও নিয়ে যাচ্ছিল শামীম আমি বাঁধা দিলে আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। পরে ফোন করে লোকজন এনে আমাদেরকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করে। এ বিষয়ে আমি দোহার থানায় একটি অভিযোগ করেছি।

অভিযুক্তরা হলেন, মধুরচর গ্রামের শামীম মোল্লা (৪৮)পিতা: রমজান মোল্লার, শাহিন মোল্লা (৩৮)পিতা: খালেক মোল্লা,জামাল মোল্লা (৬০) পিতা:কিনাই মোল্লা,জাহাঙ্গীর (৪০) ফয়জল বেপারী, রাব্বি মোল্লা (২৫) পিতা: মন্টু মোল্লা সহ অজ্ঞাতনামা ১০/১২ জন।

অন্য খবর  ব্যবসায়ীর উপর হামলা: জয়পাড়া পূর্ব বাজার ব্যবসায়ী সমিতির মানব বন্ধন

এ বিষয়ে শাহিন মোল্লার ভাই চঞ্চল মোল্লার সাথে কথা বললে তিনি জানান, শামীম মোল্লাকে দেয়া মাছ নিতে বাঁধা দেয় দেলোয়ার মোল্লা এতে কথা কাটাকাটি হয় এক পর্যায়ে জামাল মোল্লার সহযোগিতায় একটি মিমাংসায় পৌঁছে যাওয়ার পরে ঝন্টু শামীম মোল্লার গায়ে হাত তুলে। এতে দুই পক্ষের মধ্যে মারামারি লেগে যায়, সংঘর্ষে মাছ ব্যবসায়ী আহত হয়েছেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আমরাও দোহার থানায় একটি অভিযোগ করেছি।

এ বিষয় মোবাইল ফোনে  এস আই রাকিব  জানান দুই পক্ষের লিখিত অভিযোগ আমরা গ্রহন করেছি; তদন্ত সাপেক্ষে আইনি ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

Comments

comments