শীতের আগমনে দোহার-নবাবগঞ্জে ব্যাডমিন্টন খেলার ধুম

156

শীতের আগমন ঘটতে না ঘটতেই, নবাবগঞ্জ এবং দোহারের যুবকদের মাঝে ধুম লেগেছে শীতের জনপ্রিয় খেলা ব্যাডমিন্টনের প্রস্তুতির। প্রায় প্রতিটি গ্রাম, পাড়া- মহল্লায় চলছে ব্যাডমিন্টন কোর্ট কাটা, মাঠ পরিস্কার, লাইট সেটিং ইত্যাদি। দোহার নবাবগঞ্জ উপজেলায় প্রতিটি ইউনিয়নেই হয়ে থাকে বিভিন্ন টূর্ণামেণ্ট।

দোহারের জয়পাড়া বাজারের ক্রীড়া সামগ্রী বিক্রেতা লুতফুর রহমান news39.net কে জানান, প্রতিদিনই ব্যাডমিন্টন খেলার ব্যাট, নেট, ফেদার বিক্রি হচ্ছে।একটা ভালো মানের র‌্যাকেটের দাম ২-৩ হাজার টাকা। যে কর্ক দিয়ে খেলেন, এর প্রতিটির দাম ৪০ থেকে ৮০ টাকা। এসবই নিজের বিক্রি খুব ভালো বলেও তিনি জানান। এছাড়া, সকালে খেলার জন্য ফুটবল আর বিকেলে খেলার জন্য ক্রিকেট খেলার বিভিন্ন সামগ্রীর বিক্রিও আশানুরূপ বলে তিনি জানান।

নবাবগঞ্জে পাড়া-মহল্লায় চলছে ব্যাডমিন্টন খেলার মাঠ প্রস্তুতি। একইচিত্র দোহারেও। করোনার বন্দীদশা থেকে মুক্ত হয়ে, ব্যাডমিন্টন যেন হয়ে উঠেছে নির্মল বিনোদনের মাধ্যম।

নবাবগঞ্জের গালিমপুর ইউনিয়নের বড়গাও এর যুবক রানা news39.netকে জানান, এলাকার যুবসমাজকে মাদক ও অনলাইন গেমের ক্ষতিকর ছোবল থেকে রক্ষা করার উদ্দেশ্যকে কেন্দ্র করে আমাদের এই খেলাধূলা আয়োজন। তাছাড়া, খেলাধূলা করলে করোনার এসময়ে শরীর সুস্থ থাকার পাশাপাশি, অসুস্থ ধারার মোবাইল গেমিং থেকে বেরিয়ে এসে মানসিকভাবে প্রশান্তি পাবো বলে, আমরা আশা করছি।

অন্য খবর  মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় জয়পাড়া কলেজের ছাত্র নিহত

অনুশীলনের ফাঁকে দোহার উপজেলার বিখ্যাত খেলোয়াড় হিল্লোল বলেন, ‘ব্যাডমিন্টন আমার কাছে সেরা খেলা। আমার কাছে এটা খুব শখের খেলা।
শীতের সময় বিভিন্ন স্থানে খেলা দিয়ে আয়ও হয়।’

যে বয়সের ছেলেরা সাকিব, তামিম হওয়ার স্বপ্ন দেখে, ক্রিকেট খেলে আয় করতে চায়; সে বয়সে দোহার-নবাবগঞ্জ এর তরুণেরা যেন উজ্জ্বল ব্যতিক্রম। দেশের অবহেলিত এই খেলা দিয়েই আকাশ ছুঁতে চান দোহার-নবাবগঞ্জের তরুণেরা!

মন্তব্য