বঙ্গবন্ধু কন্যা আমাকে মানুষের সেবা করার সুযোগ করে দিয়েছেনঃ মাহবুবুর রহমান

262

এক সময় আমি এলাকার একটি রাস্তার কাজের জন্য এমপিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেছি, কিন্তু সবাই আশ্বাস দিয়েও কাজ করে দেননি। অথচ আজ ঢাকার ২২ এমপি আমার কাছে উন্নয়ন প্রকল্পের বরাদ্ব চেয়ে আমার কাছে চিঠি পাঠান। যা সম্ভব হয়েছে শুধু বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার জন্য। যার কারনে আমি আজ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হয়েছি। মানুষের সেবা করার সুযোগ পেয়েছি। আর এই সুযোগ দেয়ার জন্য আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে কৃতজ্ঞ বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মাহবুবুর রহমান। শনিবার বান্দুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক সংবর্ধনা সভায় তিনি এই মন্তব্য করেন।

বান্দুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো শামসুল হকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাহবুবুর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে দেশকে অন্ধকারে ঠেলে দেয়া হয়েছিল। গনতন্ত্রকে হত্যা করে দেশকে জুলুমের রাষ্ট্রে পরিনত করা হয়েছিল। কিন্তু বঙ্গবন্ধু কন্যার অক্লান্ত পরিশ্রমে সারাদেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে ধাবমান। আর উন্নয়নের এই অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনার কোন বিকল্প নেই। আর এই জন্য শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ সরকারের কোন বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেন মাহবুবুর রহমান।

অন্য খবর  ইছামতিতে মুরগির বর্জ্য; অতিষ্ঠ বান্দুরাবাসী

এই অনুষ্ঠানে আগামী তিন মাসে দোহার-নবাবগঞ্জে ৩০ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের ঘোষনা দেন মাহবুবুর রহমান। সেই সাথে নবাবগঞ্জে ৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাকা ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের ঘোষনা দেন। এর আগে বান্দুরা ইউনিয়নের বিভিন্ন রাস্তা ঘুরে দেখেন মাহবুবুর রহমান।

মাহবুবুর রহমানের এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর কৃষক লীগ (দক্ষিন) এর সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বজলুর রহমান কামাল, সাংগঠনিক সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুন, উপ প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ন কবির,  নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু, সাধারন সম্পাদক জালাল উদ্দিন, নবাবগঞ্জ উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মরিয়ম জালাল সিমু, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সুরুজ আলম সুরুজসহ বান্দুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

মন্তব্য