প্রচারে সমান সালমা ও সালমান

200
সালমা ও সালমান

সালমা ইসলাম ও সালমান এফ রহমানউচ্চ আদালতের আদেশে বিএনপির প্রার্থীর মনোনয়নপত্র স্থগিত হওয়ায় এখন ঢাকা-১ আসনে মূল লড়াই হচ্ছে আওয়ামী লীগ এবং এর শরিক দল জাতীয় পার্টির দুই নেতার মধ্যে। এই আসনে সালমান এফ রহমান আওয়ামী লীগের প্রার্থী। তিনি আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি খাতবিষয়ক উপদেষ্টা। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও বর্তমান সাংসদ সালমা ইসলাম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। হেভিওয়েট এই দুই প্রার্থী সমানতালে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

সালমা ও সালমান

জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে সালমা ইসলাম দোহার ও নবাবগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় প্রচারণা চালাচ্ছেন। তাঁর স্বামী যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুলও প্রচারণায় মাঠে আছেন। আর বিএনপির প্রার্থীশূন্য আসনটিতে নৌকার টিকিটে জয়ী হওয়ার জন্য তৎপর সালমান এফ রহমান।

দোহার ও নবাবগঞ্জ উপজেলা নিয়ে এই আসন। ভোটার ৩ লাখ ১৯ হাজার ৮৩৬ জন। ২০১৪ সালের নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে নৌকার প্রার্থী আবদুল মান্নান খানকে পরাজিত করে সাংসদ নির্বাচিত হন সালমা ইসলাম। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মহাজোট থেকে তিনি মনোনয়ন না পাওয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নেমে পড়েছেন ভোটারদের মন জয় করতে। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত বিভিন্ন এলাকা ঘুরে মোটরগাড়ি প্রতীকে ভোট চাইছেন তিনি।

অন্য খবর  নবাবগঞ্জে মদ্যপায়ীর হামলায় যুবক আহত

গতকাল বৃহস্পতিবার নবাবগঞ্জ উপজেলার বদ্ধনপাড়ায় জনসভা করেন সালমা ইসলাম। এ সময় তিনি সন্ত্রাস, মাদক, ও চাঁদাবাজমুক্ত এলাকা গড়ার প্রতিশ্রুতি দেন। এ ছাড়া তিনি দোহার-নবাবগঞ্জে গ্যাসলাইন স্থাপন, বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানসহ বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি দেন।

এরপর সালমা ইসলাম নবাবগঞ্জ উপজেলার নয়নশ্রী এলাকায় গণসংযোগ করেন। সেখানে তিনি বলেন, ‘গত পাঁচ বছরে আমি পদ্মা নদীর ভাঙন রোধে বাঁধ নির্মাণ, ঢাকার জিনজিরা থেকে নবাবগঞ্জ, দোহার ও শ্রীনগর পর্যন্ত ৭২ কিলোমিটার রাস্তা দুই লেনের কাজ, দোহার-নবাবগঞ্জ কলেজ সরকারীকরণসহ দোহার-নবাবগঞ্জে ব্যাপক উন্নয়ন করেছি। অসম্পন্ন কাজগুলো সম্পন্ন করতে আবার জনগণের সেবা করার সুযোগ চাই। জয়ের ব্যাপারে আমি শতভাগ আশাবাদী।’

সালমা ও সালমান

এদিকে আওয়ামী লীগের পক্ষে ভোট বিপ্লব ঘটানোর জন্য সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত গণসংযোগ, উঠান বৈঠক ও পথসভা করছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী সালমান এফ রহমান। গতকাল সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নবাবগঞ্জ উপজেলার শোল্লা ও যন্ত্রাইল ইউনিয়নের প্রায় ১২টি স্থানে নৌকার গণসংযোগ করেন তিনি।

গতকাল দুপুরে নবাবগঞ্জের বাহ্রা ইউনিয়নের কান্দামাত্রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে উঠান বৈঠক করেন সালমান এফ রহমান। তিনি নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘দলে দলে ভাগ হয়ে এলাকায় এলাকায় ভোট চাইবেন। নিরপেক্ষ ও অন্যান্য দল এবং মতের ভোটারদের কাছে গিয়েও ভোট চাইবেন। শুধু আওয়ামী লীগের জন্য শেখ হাসিনা উন্নয়ন করেননি। তিনি দেশের প্রত্যেক নাগরিকের জন্য উন্নয়ন করেছেন।’ সালমান এফ রহমান বলেন, ঢাকা থেকে দোহার-নবাবগঞ্জে আসতে কেরানীগঞ্জ হয়ে আসতে হয়। ভবিষ্যতে ঢাকা থেকে দোহার-নবাবগঞ্জে আসার নতুন একটি সড়ক তৈরির প্রকল্প নেওয়া হবে।

অন্য খবর  নবাবগঞ্জে ১৪টি ইউনিয়নে ভিজিএফ-এর চাউল বিতরণ

Comments

comments