নারিশায় প্রাথমিক শিক্ষকের উপর সন্ত্রাসী হামলা

979
নারিশায় প্রাথমিক শিক্ষকের উপর সন্ত্রাসী হামলা

ঢাকার দোহার উপজেলাত নারিশা পশ্চিম চর এলাকায় মোঃ সাদিকুল ইসলাম লিপু(৩৮)  এর উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। জানা যায়,  গত শুক্রবার সন্ধার পর তার উপর সন্ত্রাসী হামলা চালায় প্রতিপক্ষ। ধারনা করা হচ্ছে জমি সংক্রান্ত বিষয় জেরে হামলা চালায়।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে জানা যায়, সন্ধ্যার পর লিপুকে পিছন দিক থেকে আক্রমন করা হয়। এই সময় আক্রমনকারীরা লাঠি দিয়ে এলোপাতারি মারতে থাকে। এই সময় লিপু দৌড় তার বাড়িতে আশ্রয় নেয়। এই সময় আক্রমনকারীরা তার বাড়িতে অবস্থান নেয়।  তখন তিনি ঘরে অবরুদ্ধ অবস্থায় আটকা পরে। তখন ফাড়ির পুলিশ কে ফোন দিলে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভুর্তি করে।

হামলার শিকার সাদিকুল ইসলাম লিপু  বলেন,আমি একজন চৈতাবাতর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক, আমি গত কাল মাগরিবের নামাজের পরে বাড়ি ফেরার পথে এক দল সন্ত্রাসী হামলা করে। পিছন দিক থেকে ২০ জনের মত হবে আমার উপর হামলা করে তখন তিনজনকে ধরে ফেলি ও জিঙ্গেস করি তোরা কারা? তখন তারা বলে আমরা শাহিন খন্দকারের লোক। তার নির্দেশে হামলা চালায় আমার উপর।  তখন আমি দৌড় দিয়ে আমার ঘরে ঢুকে যাই তখন আমাকে অবরুদ্ধ করে রাখে। পুলিশ কে ফোন দিলে তারা আমায় উদ্ধার করে তখন আমি হাসপাতালে ভর্তি হই।

অন্য খবর  দোহার উপজেলা প্রশাসনের জরুরি গণবিজ্ঞপ্তি

তিনি  জানান,শাহিন খন্দকার আগে থেকেই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছে ও এলাকার কিছু ছেলেপেলে নিয়ে এ হামলা  চালায়। সম্পত্তি জেরে তারা আমার পারিবারিক সম্পত্তি নিয়ে এ ভেজাল করতেছে। আমরা পারিবারিকভাবে এ সম্পত্তির মালিক।

তিনি আরো বলেন,শাহিন খন্দকার (পিতাঃ বাদশা খন্দকার) তাদের পারিবারিক ভাবে সব ছেলেই সন্ত্রাসী।

এসময় শাহিন খন্দকারের সাথে মুঠোফোন যোগাযোগ করলে ফোনটি বন্ধ পাই।

এই হামলা নিইয়ে দোহার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন শিক্ষক সাদিকুল ইসলাম লিপু।

Comments

comments