দোহারে প্রসূতি মায়েরা সঞ্চয়ের জন্য পেলেন মাটির ব্যাংক

128

দোহার (ঢাকা) প্রতিনিধিঃ ঢাকা জেলার দোহার উপজেলার ডায়ারকুম ও মিজাননগর কমিনিটি ক্লিনিকে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে গর্ভবতী মায়েদের নিজস্ব সঞ্চয়ে উৎসাহী করার জন্য তাদের হাতে তুলে দেয়া হয়- মাটির ব্যাংক। একইসাথে, প্রতিমাসে দোহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গড়ে ৬০টি করে নরমাল ডেলিভারি করা হয় বলে জানানো হয়। শনিবার মিজাননগর ও ডায়ারকুম কমিউনিটি ক্লিনিকে এই উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথি ছিলেন দোহার উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ জসীম উদ্দিন।

ডা. মো জসিম বলেন, মা- হওয়া পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ অনুভূতি। একজন মেয়ে যখন মা হয়, নারী হিসেবে তখনই তার পূর্ণতা আসে। গর্ভধারণের এই নয় মাসের যাত্রা পথে শারীরিক ও মানসিক অনেক চড়াই-উৎরাই পার করতে হয় এই মাকে। পাশাপাশি বর্তমান সমাজ ব্যবস্থায়, নরমাল ডেলিভারি এর চেয়ে সিজারিয়ান সেকশন এর মাধ্যমে প্রসবের হার অনেক অনেক বেশি৷ তবে প্রতিমাসে দোহার উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে গড়ে ৬০টি করে নরমাল ডেলিভারি করা হয়।

তিনি আরো বলেন, দোহারের সকল গর্ভবতী মাকে একটি নিয়মিত নিয়ন্ত্রিত মনিটরিং সিস্টেমে কিভাবে আনা যায়, আমরা সেই ব্যবস্থা নিচ্ছি।  গর্ভবতী মায়েদের নিরাপদ প্রসব নিশ্চিত করতে আমরা বদ্ধ পরিকর।

অন্য খবর  ১৪ দলীয় জোটের সাথে ব্যাঃ নাজমুল হুদার সংহতি

শুধু গর্ভবতী জানাই যথেষ্ট নয়, তার পরিবারের প্রতিটি সদস্যকে আমরা যেন অবহিত করতে পারি – কোন অবস্থায় কখন কি করতে হবে, কখন চেক আপ এ আসতে হবে, প্রসবের পরিকল্পনা, গর্ভকালীন বিপদ সংকেত ও আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য তাদের সামনে উপস্থাপন করেন –
ডা. উম্মে হুমায়রা কানেতা মেডিকেল অফিসার ( রোগ নিয়ন্ত্রণ) ।

উঠান বৈঠক এ আরো উপস্তিত ছিলেন কমিউনিটি ক্লিনিক এর জমিদাতা, ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান, এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, স্বেচ্ছাসেবীরা।

মন্তব্য