দোহারে ইটের ভাটায় জ্বালানো হচ্ছে মধু বৃক্ষ গেঁজুরসহ ফলদ গাছ

577

 

ঢাকার দোহারে সদর আলী, সমির খালাসী ও জাহাঙ্গীর খালাসীর ইটের ভাটায় জ্বালানী হিসাবে ব্যাবহার করছে মধুবৃক্ষ গেঁজুর, আম,জাম,তেঁতুল ও নারিকেলের বৃক্ষ। এতে নষ্ট হচ্ছে পরিবেশের ভারসাম্যতা ও দেশ থেকে হারিয়ে যাচ্ছে ফলদ বৃক্ষ।

জানা যায়, ঢাকার দোহার উপজেলার মুকসুদপুর ইউনিয়নের গোড়াবন এলাকায় সদর আলী ইট ভাটায় দিন রাত হরদমে পুড়িয়ে যাচ্ছে মধুবৃক্ষ গেঁজুরসহ ভিবিন্ন ফলদ বৃক্ষ। এবং ইট পোড়ানো ধোঁয়ায় নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ ও কৃষকের জমির ফসল।

স্থানীয় বাসিন্দা সফু বেপারী (৬৫) জানায়, আমিও আমার স্ত্রী মেয়ের বাড়িতে গিয়েছিলাম চার দিন পর এসে দেখি আমার দাদার হাতে লাগানো দুটি আম ও একটি গেঁজুর গাছ নেই ইট ভাটার মালিক, আমার ছেলের কাছ থেকে কিনে নিয়েছে।

সদর আলী ইট ভাটার পরিচালক রবিউল (৪০) জানায়, আমাদের পাথর কয়লা ব্যাবহার করা উচিৎ। গাছে করচ কম পরে তাই বর্তমান গাছই ব্যাবহার করছি।

দোহার উপজেলা চেয়ারম্যান আলমগির হোসেন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কেএম আল আমিন জানায়, আমরা জরুরি ভাবে বনবিভাগ কর্মকর্তাকে সাথে নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিব।

অন্য খবর  এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে আমরা এক সাথে কাজ করবোঃ আবু আশফাক

Comments

comments