দোহারে অগ্নিকাণ্ড: ৯৯৯ ফোনে আগুন নেভালো ফায়ার সার্ভিস

198

আল-আমীন ও শরিফ হাসান,স্টাফ রিপোর্টার, news39.net: শুক্রবার (২২ অক্টোবর) ভোরে দোহার উপজেলার রায়পাড়া ইউনিয়নে
বসতঘরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার ভোরে উপজেলার রায়পাড়া ইউনিয়নের বাঁশতলা নাগেরকান্দা গ্রামের আবুল কালামের বাড়িতে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ৯৯৯ এ খবর পেয়ে, ঘটনাস্থলে পৌছায় দোহার ফায়ার সার্ভিস। পরে চার ঘন্টা চেষ্টায় ফায়ার সার্ভিস আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ততক্ষণে পুড়ে ছাই হয়ে যায় ঘরের সবকিছু। গ্যাস সিলিন্ডারের পাইপ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে, জানান বাড়ির মালিক আবুল কালাম।

আবুল কালাম জানান, ভোরবেলা তার পুত্রবধু গ্যাসের চুলায় রান্না রেখে, পাশের ঘরে গেলে চুলার সাথে সংযুক্ত পাইপ থেকে হঠাৎ আগুন লেগে মুহূর্তেই তা ছড়িয়ে পরে। এসময় পুড়ে যায় কাঠের বারান্দাসহ ১টি চৌচালা ঘর, ঘরে থাকা আসবাবপত্র ও নগদ ৪৫হাজার টাকা। প্রায় ৭-৮ লাখ টাকার সর্বমোট ক্ষতি হয়েছে বলে জানান তিনি।

তবে এ ঘটনায় হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সরকারের সহায়তা কামনা করেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার।
তিনি আরো বলেন, আমার যে ক্ষতি হয়েছে তাতে আমার সব শেষ হয়ে গিয়েছে। এখন সরকারের কাছে আমার দাবি আমাকে চলারমত এবং থাকার মত একটা ব্যবস্থা করে দিক, যাতে আমি দুমুঠো খেয়ে বাঁচতে পারি।

অন্য খবর  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে বিএনপির প্রতি ক্ষোভ ঝাড়লেন আব্দুর রহিম মিয়া

ঘটনার প্রতক্ষ্যদর্শী জেবা ইসলাম বলেন, আমি প্রতিদিনের ন্যায় ফজরের নামাজ পড়তে উঠে দেখি পাশের বাসায় ধুয়া উঠছে। তখনই আমি ৯৯৯ এ ফোন দেই। তারা প্রতিউত্তরে বলেন, ফোন কাটবেন না আমরা আপনার ঐ লোকেশন ফায়ারসার্ভিস এর লোক পাঠাচ্ছি; তখন তারা এসে আগুন নেভায়। কিন্তু ততোখনে আবুল কালামের সব শেষ হয়ে যায়।

 

 

 

 
দোহার ফায়ারসার্ভিস সব অফিসার মোঃ শহিদ আলম জানান, তারা যখন আমাদের ফোন দেয় তখন আমরা ঘটনাস্থলে তাৎক্ষণিক পৌছাই আর গিয়ে দেখি আগুনের লিলিহা গাছের উপরে উঠে গিয়েছে। তখন আমরা দ্রুত করে পাশের পুকুর থেকে পাম্প দিয়ে পানি নিয়ে আগুন নিভানোর কাজ করি। আমরা গিয়ে দেখি একটি ঘরপুরো পিরে গিয়েছে পরে আমরা পাশের থাকা ঘরগুলো পানি দিয়ে আগুন নিভিয়ে রক্ষা করতে পারি। তারা আমাদেরকে জানিয়েছেন গ্যাসের চুলায় ডিম ভাজতে গিয়ে এই আগুিনকান্ডর ঘটনা ঘটে। আমাদেরও প্রাথমিক ধারনা এটি গ্যাস সিলিন্ডার থেকেই আগুন ধরেছে।

মন্তব্য