সালমা ইসলাম

তৃণমূল জনগোষ্ঠেীর উন্নয়নে কাজ করতে আমি সর্বদা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আমার প্রত্যাশা- জনগণ যেন তাদের মৌলিক অধিকারগুলো যথাযথভাবে পায়। তার জন্য সবাইকে কাজ করতে হবে। সমাজের সব সচেতন মানুষকে আমি বলব, আপনারা এগিয়ে আসুন। দল ও মতের ঊর্ধ্বে থেকে সবাই মিলে দোহার ও নবাবগঞ্জকে একটি সমৃদ্ধ এলাকায় রূপান্তর করি। বৃহস্পতিবার ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে ৭টি সড়ক ও ৫টি ব্রিজ উদ্বোধনকালে বারুয়াখালীর ছত্রপুর এলাকায় এক সভায় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং ঢাকা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘দারিদ্র্যমুক্ত এলাকা গড়ার প্রথম শর্ত শিক্ষায় অগ্রসর হওয়া। জাতীয় সংসদে দোহার ও নবাবগঞ্জের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি জানিয়েছি। ফলে প্রধানমন্ত্রীর সার্বিক সহায়তায় এই অঞ্চলের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সরকারীকরণ এবং রাস্তাঘাট, পুল-কালভার্টের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। বর্তমানে বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড চলমান রয়েছে।

সালমা ইসলাম এমপি এ সময় বলেন, দোহার-নবাবগঞ্জের অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করার লক্ষ্যে আগামী নির্বাচনে আমাকে ভোট দিলে এ অঞ্চল হবে উন্নয়নসমৃদ্ধ। তিনি প্রান্তিক এলাকার মানুষের যাতায়াত ব্যবস্থা উন্নত করতে সর্বদা কাজ করছেন বলেও জানান।

অন্য খবর  প্রশাসনের একটি মহৎ উদ্যোগই ফিরিয়ে দিতে পারে খরস্রোতা ইছামতির রুপ যৌবন

সালমা ইসলাম এমপি একই দিন উপজেলার বান্দুরার মহব্বতপুর, বারুয়াখালীর ছত্রপুর, জয়কৃষ্ণপুর, আশয়পুর, বাহ্রার কান্দামাত্রা, শোল্লা ও চুড়াইন এলাকায় এসব রাস্তা ও ব্রিজের কাজ উদ্বোধন করেন।

এ সময় দুর্যোগ অধিদফতরের উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. হাবিবুল্লা মিয়া, ইউপি চেয়ারম্যান ড. মো. সাফিল উদ্দিন মিয়া, আরিফুর রহমান শিকদার, মাসুদুর রহমান, রজ্জব আলী মোল্লা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Comments

comments