চোখের জলে নিজ এলাকায় বিদায় নিলেন নির্মল গুহ

144

চোখের জলে বিদায় নিলেন নির্মল রঞ্জন গুহ। এক জীবনে এতো ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা পাওয়া সত্যিই দুস্কর। দোহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেনের ভাষায়, নির্মলের বিদায় রাজসিক। নির্মলের বিদায় ঐতিহাসিক।

স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক আফজাল বাবুর ভাষায়, তিনি মানুষের হৃদয়ের সম্রাট হিসেবে বিদায় নিয়েছেন।

ঢাকা জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি মাহাবুব বেপারী কান্নায় ভেঙে পড়ে বলেন, দাদার সাথে ৩৩ বছরের স্মৃতি কিভাবে ভুলি?

দোহার উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতি বাশার চোকদার বলেন, দাদা আমারে কই রেখে গেলেন, কই ফেলে গেলেন।

দোহার স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেত্রী রুনুর ভাষায়, আমাদের এতিম করে গেলেন।

নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাসিরুদ্দিন ঝিলুর ভাষায়, বন্ধু বলি, সহযাত্রী সব কিছুই নির্মল। আজ দোহার নবাবগঞ্জে একজন সর্ব সাধারণের অভিভাবক হারিয়ে গেলেন। এই অভাব আওয়ামী লীগের জন্য অপরিমেয়।

শুক্রবার দুপুর ২টায় নবাবগঞ্জ উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মরদেহ আনা হয় বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ’র। উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় আওয়ামী ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ। এসময় উপস্থিত সকলের চোখ জলে ছলছল করছি। মানবতার ফেরিওয়ালাখ্যাত, প্রিয় ‘নির্মল দা’ নেই এটা কেউ ভাবতে পারছিলেন না। একদিকে চলছিল আওয়ামী, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ সকল শ্রেণিপেশার মানুষের ফুলেল শ্রদ্ধা, অন্যদিকে শহীদ মিনার বেদিতে চলছিল স্মৃতিচারণ সভা।

সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কাজী মেজবাউল হাসান, সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু, আওয়ামীলীগের জাতীয় কমিটির সদস্য আব্দুল বাতেন মিয়া, ঢাকা জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু, ঢাকা জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুন, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ ঢাকা জেলার সাধারণ সম্পাদক বরুণ মৌমিক নয়ন, নির্মল রঞ্জন গুহ’র বড় ছেলে ও ঢাকা জেলা দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অনুপম গুহ নয়ন প্রমুখ।

পরে বিকাল ৩টায় দোহার উপজেলার জয়পাড়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ, বাহ্রা হাবিল উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের জনগণ অশ্রুশিক্ত নয়নে ও ফুলেল শ্রদ্ধায় শেষ বিদায় জানিয়েছেন নির্মল রঞ্জন গুহকে। সে সময় সৃতিচারন করেন, দোহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও দোহার উপজেলার চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, ঢাকা জেলা দক্ষিণ সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মাহাবুব বেপারী।

শুক্রবার বিকাল ৬টা পর্যন্ত নিজবাড়ি দোহারের বাস্তা গ্রামে পারিবারিক অন্তষ্টিক্রীয়া (ধর্মীয় ক্রীয়া) করে। ঐ বাড়িতেই তাকে সমাধি (কবর) দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, নির্মল রঞ্জন গুহ গত বুধবার সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

আপনার মতামত দিন