কেরানীগঞ্জে চিকিৎসকের অবহেলায় প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ

80

রাজধানী ঢাকার অদূরে কেরানীগঞ্জ উপজেলার কদমতলীতে অবস্থিত মেরিস্টোপস ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় সুমি আক্তার (২৪) নামে এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। গতকাল রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাতে সুমির আক্তারের সিজার করার সময় তার মৃত্যু হয় বলে জানান সুমির স্বামী শরীফ।

নিহত সুমির স্বামী অভিযোগ করে বলেন, আমি আমার স্ত্রীকে চিকিৎসার জন্য গতকাল রবিবার সকাল ১১টার দিকে আমার স্ত্রীকে আমি মেরিস্টোপস ক্লিনিকে ভর্তি করি। হাসপাতালে ভর্তির পর তারা বলে এক্ষুণি সিজার করতে হবে তারপর তাদের কথায় আমি রাজি হয়ই। তারপরে বিকাল ৪ টার দিকে অপারেশন শুরু করেন ডা. সাজেদা খাতুন ও এনেথেসিয়া ডা. মনির হোসেন। কোনো প্রকার পরীক্ষা না করেই তারা রোগীর শরীরে এনেসথেসিয়া ইনজেকশন দেন ও সিজার করেন। এতে জমজ বাচ্চা (একটি ছেলে ও মেয়ে) জন্ম হয়। যদিও আরও ৪দিন পরে সিজার করার কথা ছিলো।

এদিকে সিজার করার পর সুমির প্রচন্ড রক্তক্ষরণে শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাহিরে গেলে মেরিস্টোপস্ হাসপাতাল থেকে মিডফোর্ট হাসপাতালে রোগীকে প্রেরণ করা হয়। মিডফোর্ট হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত ডাক্তার সুমিকে মৃত ঘোষণা করে।

অন্য খবর  দোহারে পদ্মা ভাঙ্গন রোধে মানববন্ধন

কেরানীগঞ্জ থানা থেকে বলা হয় এ ব্যাপারে এখনো কোন মামলা হয়নি। মামলা হলে আমরা বিষয়টি দেখবো।

Comments

comments