মিজানুর রহমান শমশেরীর দুটি কবিতা

207

ব্যর্থ যৌবন

তোমাদের কঠিন প্রহরায়

প্রত্যহ এখানে নিঃসঙ্গ প্রহর কেটে যায়।

এখানে পড়ন্ত রোদে উড়ায় পথের ধূলি,

ঝরে যায় নব যৌবনের বসন্ত গোধূলি।

 

প্রত্যহ এখানে রুদ্ধ হয় জীবন প্রশ্বাস,

স্নায়ুতে স্নায়ুতে জড়তা জড়ানো যৌবনোচ্ছ্বাস।

মৃত্যুর পদাবলি প্রত্যহ এখানে শুনি

নিঃসঙ্গ নির্জনতায় তাই তো প্রহর গুনি।

 

কতদিন বাকি আর মুক্তির আসন্ন প্রভাত,

ব্যর্থ হলো জীবনের যৌবন বসন্ত রাত।

 

অবাক পৃথিবী 

অবাক পৃথিবী, অবাক করলে

অবাক তোমার কাজ,

ওই ক্ষুধাতুর কাঁদে রাজপথে

রাজপথও কাঁদে আজ।

 

মহারাজ পোষে কুকুর প্রহরী

দারোয়ান দিয়ে ছুটি

কুকুরে চিবায় মাংস পোলাও

মানুষ পায় না রুটি।

 

জঠর জ্বালায় চলে গেছে মাতা

শিশুরে করিয়া নিঃস্ব

কাক শকুনেরা মাংস খেয়েছে

হায়রে অবাক বিশ্ব!

 

চারিদিকে শুধু লাশ আর লাশ

ভরেছে গোরস্থান,

বিস্মৃত আঁখি খুঁজে ফিরে হায়

কোথা এর সমাধান!

Comments

comments