মরন ফাঁদ কার্তিকপুর-বাঁশতলা সড়ক

248

নিউজ৩৯♦ ঢাকা-দোহার সড়কে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। দীর্ঘদিন কোন সংস্কার না হওয়ায় দূভোর্গে শিকার হচ্ছে এলাকাবাসী। সেই সাথে জয়পাড়া হাট-বাজারে আসা সাধারণ মানুষ। স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, সংস্কারের আশ্বাসের নামে কাল ক্ষেপন করছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ।

 

সরেজমিনে দেখা যায়, দোহারের মৈনট ট্রলারঘাট থেকে লটাখোলার করম আলীর মোড় পর্যন্ত প্রায় প্রায় ১০ কি.মি. রাস্তায় পিচ ও ইটের খোয়া উঠে গেছে। এতে রাস্তা জুড়ে ডোবার ন্যায় বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। যান চলাচলের সময় ধুলা-বালিতে পথচারিদের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। একই অবস্থা ঢাকা-দোহার সড়কের মেঘুলা বাজার, নারিশা, বাঁশতলা, কার্তিকপুর, চরকুশাই, জয়পাড়া বাজার, থানার মোড়সহ অর্ধশতাধিক স্থানের।

 

এলাকাবাসীর অভিযোগ, অতি জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটির এ অবস্থা যেন প্রশাসন ও সড়ক ও জনপথ বিভাগের কারোই নজরে আসছে না। দোহারের সর্ববৃহৎ বাণিজ্যিক কেন্দ্র জয়পাড়া হাট-বাজার। প্রতিদিনের বাজার ছাড়াও বৃহষ্পতিবার সাপ্তাহিক হাটের দিন দোহার, নবাবগঞ্জ, কেরানীগঞ্জ, শ্রীনগর, মানিকগঞ্জের হরিরামপুর ও ফরিদপুরের চরভদ্রাসন থেকে শত শত ব্যবসায়ীরা এ হাটে আসেন। কিন্তু হাট-বাজারে আসার মূল রাস্তাটি সামান্য বৃষ্টিতে পানি জমে গর্তগুলো ডোবায় পরিণত হয়। গাড়ীতে চলাচলকারী যাত্রীরা গর্তে উঠানামা করার সময়ে প্রায়ই আহত হন। গর্তে চাকা আটকে গিয়ে গাড়ীর ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়।

 

অন্য খবর  আমিই ঢাকা জেলা বিএনপির সভাপতি - ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা

গতি পরিবহনের চালক মো. জামাল মিয়া বলেন, এ রাস্তায় গাড়ী চালাতে গিয়ে ইঞ্জিন চেসিস বিকল হয়ে যায়। ঝাঁকুনিতে যাত্রীদের গালিগালাজ খেতে হয়। শুধু তাই নয় ২০মিনিটের রাস্তা যেতে দুই থেকে এক থেকে দেড় ঘন্টা সময় লেগে যায়। এতে করে আমাদের আয়ও কমে যাচ্ছে।

 

জয়পাড়া বাজারের ব্যবসায়ী জালাল ব্যাপারী বলেন, জয়পাড়া হাটে যাওয়ার একমাত্র রাস্তা এটি আর এই রাস্তার এ দশা মানুষকে চরম ভোগান্তিতে ফেলেছে। ঢাকা যাতায়াতের প্রধান এ সড়কটি দীর্ঘদিনেও সংস্কার কাজ না হওয়ায় চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে দোহারসহ আশপাশের উপজেলার বাসিন্দাদের। তিনি দ্রুত এ রাস্তাটি সংস্কারের দাবি জানান।

 

দোহার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুল করিম ভূইয়া বলেন, রাস্তাটির অবস্থা খুবই করুণ। এবিষয়ে উপজেলা পরিষদের সভায় আলোচনা হয়েছে। সড়ক ও জনপথ কর্তৃপক্ষকে বার বার বলা হয়েছে।

 

স্থানীয় সাংসদ অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম বলেন, দোহার নবাবগঞ্জের সাথে ঢাকা যোগাযোগের সব রাস্তা এবং আঞ্চলিক সড়কের সংস্কার কাজ সম্পন্ন করতে সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রকৌশলীদের তাগিদ দেয়া হয়েছে। যাতে খুব শীঘ্রই এসব রাস্তার কাজ সম্পন্ন সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

অন্য খবর  কেরানীগঞ্জের নতুন কারাগারে বন্দী স্থানান্তর ১৫ জুলাই

মুন্সিগঞ্জ অঞ্চলের সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী নুরুল হোসেন বলেন, রাস্তাটির দরপত্র আহবান শেষে কার্যাদেশ দেয়া হয়েছে। দ্রুত সংস্কার কাজ শুরু হবে।

Comments

comments