রাস্তা তো নয় জলাশয়

112

এম.এ.সবুজ, নিউজ৩৯.নেট ♦ ঢাকা থেকে দোহার সড়কে ফুলতলা একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থান। এ পথ দিয়ে প্রতিদিন যানবাহন যাতায়াত করে। যাওয়া আসার পথে ফুলতলা পুলিশ ফাঁড়ির সামনে প্রতিটি গাড়ীকেই একটু থামতে হয়। হয় যাত্রী উঠা নামা বা রাস্তার বেহাল দশার জন্য।

আবার মাঝে মধ্যে ফুলতলা থেকে ছেড়ে যাওয়া সেবা পরিবহনের গাড়ি রাস্তার পাশে দাড় করিয়ে রাখার কারণে যানজটের সৃষ্টি হয়। এর উপর বাড়তি দুর্যোগ গতি গাড়ি নামে পরিচিত জিপ গাড়ী।

ফুলতলা বাজার ও দোকানের ময়লা আবর্জনার কারণে সবসময়েই ফাঁড়ির সামনে জায়গাকে মনে হয় যেন ড্রেনে পার্শ্ববর্তী জায়গা। গত রোজার ঈদের আগে থেকে শুরু হওয়া দোহার-শ্রীনগরের রাস্তা মেরামতের কোন ছোয়া পায়নি ফুলতলা পুলিশ ফাঁড়ির সামনের জায়গা। এই মেরামত জনগণের সাথে লুকোচুরি খেলা নাকি দায় সারানো সেই প্রশ্ন এলাকাবাসী ও যাত্রীদের মনে।

ফুলতলা বাজারের সভাপতি মানিক শিকদার এ ব্যাপারে নিউজ৩৯.নেটকে জানান যে তিনি স্বীকার করেন যে এ রাস্তা মেরামত করা জরুরী। তবে রাস্তার ঠিকাদারদের সাথে কথা বললে তারা ভিন্ন মত কথা বলে। ফুলতলা বাস সম্পর্কে তিনি জানান, ইতোমধ্যে পদ্মা কলেজ কর্তৃপক্ষ ও আব্দুর রাজ্জাক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের আপত্তির কারণে কলেজ ও হাসপাতালের সামনে বাস রাখা হয় না।

কিন্তু বাজার সমিতির অনুরোধ সত্যেও বাস মালিকরা এভাবে রাস্তায় বাস রেখে যানজট সৃষ্টি করে। তাই এলাকাবাসী ও দোকানদারদের দাবী, বাস স্ট্যান্ড অন্যকোথাও সরানো এবং রাস্তা মেরামত করা জরুরী।

Comments

comments