দোহার–নবাবগঞ্জ আসন আলাদা চাই, চাই নাঃ নিউজ৩৯ কে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সাক্ষাৎকারঃ পর্ব – ২

178

দীর্ঘদিন ধরেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কেন্দ্র করে ধারাবাহিক প্রতিবেদন প্রকাশ করে চলেছে নিউজ৩৯। আসনটি পূণর্বিন্যাসে বিভিন্নজনের রয়েছে বিভিন্ন মত। আগামী ২৫শে এপ্রিল বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনে ৪০টি আসনের পূণর্বিন্যাস ও চার শতাধিক পিটিশনের উপর রয়েছে শুনানী। তাই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে ঢাকা-১ তথস দোহস্র – নবাবগঞ্জবাসী। ইতঃমধ্যে সরকারের বিভিন্ন সংস্থার এই বিষয়ের উপর জরিপও চলছে বলে জানা গেছে। এইবার দ্বিতীয় পর্বে রয়েছে অন্যান্য খ্যাতিমান জনপ্রতিনিধি, শিল্পপতি ও রাজনীতিবীদদের মতামত ও প্রত্যাশা।

ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক ও নবাবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান খন্দকার আবু আশফাক নিউজ৩৯কে আসন বিন্যাস নিয়ে বলেন, পূর্বে আসনটা তো আলাদাই ছিল। আমি মনে করি আসনটা পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে আনাই ভাল। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে একটা গোষ্টি এই আসনকে এক করেছিল। তারা জনগনের উন্নয়নের কথা মাথায় আনে নি, মাথায় আনে নি এই দুই উপজেলার সার্বিক উন্নয়নের কথা। তারা রাজনৈতিক স্বার্থে এই দুই আসনকে আলাদা করেছিল। আমি মনে করি জনগনের স্বার্থে, উন্নয়নের স্বার্থে এই দুই আসনকে আগে অবস্থায় ফিরিয়ে নেয়া উচিত।

ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও কেন্দ্রিয় উপকমিটির সাবেক সহ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুন নিউজ৩৯কে ঢাকা-১ সংসদীয় আসনের পুন বিন্যাস নিয়ে বলেন, ঐতিহ্যগত ভাবেই এই দুই উপজেলা আলাদা। এই দুই উপজেলাকে এক করে এক সময় নতুন করে ঢাকা-১ সংসদীয় আসন গঠন করা হয়েছিল। কিন্তু সময়ের দাবির প্রেক্ষিতে এটাই দুই উপজেলাকে আসন পূর্নবিন্যাস করে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে নেয়া দরকার। যদি আগের অবস্থায় ফিরিয়ে নেয়া যায়  তাহলে দুই উপজেলার গ্রামীন উন্নয়ন যেমন বৃদ্ধি পাবে, ঠিক একই সাথে এই দুই উপজেলার সাধারন মানুষের উন্নয়নের গতিও ত্বরান্বিত হবে।

ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ সাখাওয়াত হোসেন নান্নু নিউজ৩৯কে ঢাকা-১ সংসদীয় আসনের পুন বিন্যাস নিয়ে বলেন, এই দুই আসনের পূর্ন বিন্যাস এখন সময়ের দাবি। তাই উন্নয়নের সার্থে, এউ দুই উপজেলার সাধারন মানুষের স্বার্থে ঢাকা-১ সংসদীয় আসন পূর্নবিন্যাস করা উচিত। এবং দোহার এবং নবাবগঞ্জকে আগের আসন বিন্যাসে ফেরত নেয়া উচিত।

নবাবগঞ্জ উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেত্রী মরিয়ম জালাল শিমু নিউজ৩৯কে আসন বিন্যাস নিয়ে বলেন, এই দুই উপজেলার আসন ভাগ করা এখন সময়ের দাবি। এটা একই সাথে যেমন রাজনৈতিক ঠিক তেমনিভাবে উন্নয়নের সাথেও সম্পৃক্ত। ঢাকা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান দোহারের, আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ক্যান্ডিডেট দোহারের, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দোহারের। ফলে নবাবগঞ্জ উন্নয়নের মাপকাঠিতে যেমন এগিয়ে যাওয়ার কথা ছিল সেভাবে এগোতে পারছে না। উন্নয়নের মাপকাঠিতে নবাবগঞ্জ দোহারের থেকে অনেক পিছিয়ে রয়েছে। আর রাজনৈতিক ভাবেই এউ উপজেলায় বড় কোন নেতা তৈরি হচ্ছে না।  তাই আমাদের আশা এই দুই উপজেলা আলাদা আসন হবে। এবং নবাবগঞ্জের উন্নয়নের গতি ত্বরান্বিত হবে।

অন্য খবর  বান্দুরা হলিক্রশ স্কুলে শিক্ষিকা পালালেন ছাত্রের হাত ধরে

দোহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবুল নিউজ৩৯কে আসন বিন্যাস নিয়ে বলেন, আমরা চাই এই দুইটা আসন আলাদা হোক। দোহারের উন্নয়নের জন্য, নবাবগঞ্জের উন্নয়নের জন্য এই দুইটা আসন আলাদা করা সময়ের দাবি। তবে একই সাথে আমরা সব সময় চাই আওয়ামী লীগ সরকার পরিচালনা করুক। সেই হিসাবে সরকার যেই ভাবেই সংসদীয় আসন বিন্যাস করবে সেই ভাবেই মেনে নিতে আমাদের কোন আপত্তি নেই।

দোহার উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও ঢাকা জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মাসুদ পারভেজ নিউজ৩৯কে আসন বিন্যাস নিয়ে বলেন, এতো বড় একটা আসন হতে পারে না। ১/১১ পরবর্তী সরকার শুধু মাত্র একটি বিশেষ দলকে রাজনৈতিক সুবিধা দেয়ার জন্য এই দুই আসনকে আলাদা করেছিল। যা কোন ক্রমেই ঠিক হয় নি। এতে শুধু দুই উপজেলার জন্য উন্নয়নের স্থবিরতা নেমে এসেছে। আমি চাই আসন ভাগ হোক এবং সেটা অতি দ্রুতই হোক।

নারিশা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ঢাকা জেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাউদ্দিন দ্বরানী নিউজ৩৯কে আসন বিন্যাস নিয়ে বলেন, ঢাকা-১ একটি অনেক বড় সংসদীয় আসন। নির্বাচন কমিশন যেভাবে শুধুমাত্র জনসংখ্যার বিত্তিতে আসন বিন্যাস করেছে সেটা ঠিক হয় নি। এই রকম আসন বিন্যাসের ফলে এই অঞ্চলে একটা উন্নয়ন স্তবিরতা দেখা দিয়েছে। তাই সকলের উন্নয়নের জন্য, দোহার-নবাবগঞ্জ সম ভাবে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাওয়ার জন্য এই সংসদীয় আসন বিন্যাস করা অতিব জরুরি।

ঢাকা জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ মোল্লা নিউজ৩৯কে আসন বিন্যাস নিয়ে বলেন, বাংলাদেশ স্বাধীনতার সময় যেভাবে এই এলাকার আসন বিন্যস্ত ছিল ঠিক একই ভাবে এই অঞ্চলের আসন বিন্যস্ত করা উচিত। বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে আসন আলাদা করার ফলে দোহার ও নবাবগঞ্জে যেভাবে উন্নয়নের কথা ছিল সেভাবে উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালিত হচ্ছে না। ফলে উন্নয়নের স্বার্থে, এই অঞ্চলের সাধারন মানুষের স্বার্থেই এই আসনকে আলাদা করে নতুন করে আসন বিন্যস্ত করা উচিত।

অন্য খবর  কোঠাবাড়ীর চকে কৃষি জমিতে অবৈধ ইটভাটা নির্মান বন্ধে বিক্ষোভ সমাবেশ

সাবেক সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি ও বিসিবির সাবেক পরিচালক ফাহিমা হোসেন জুবলি নিউজ৩৯কে আসন বিন্যাস নিয়ে বলেন, রাজনৈতিক ভাবে এবং উন্নয়নের স্বার্থে এই দুইটা আসনকে আলাদা করা উচিত। দেখা যায় বিএনপির সময় নবাবগঞ্জে এমপি আবার আওয়ামী লীগের সময় দোহারের এমপি। ফলে উন্নয়নটা সমাজের সকল স্তরে পৌছাচ্ছে না। তাই আমি চাই দোহার এবং নবাবগঞ্জের আসন বিন্যাস পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে আনা হোক।

ঢাকা-১ আসনের জাতীয় পার্টির সাবেক এমপি শহীদ খন্দকার নিউজ৩৯কে আসন বিন্যাস নিয়ে বলেন, দোহার ও নবাবগঞ্জের জন্য আসন আলাদা হয়ে যাওয়াই ভাল। আসন এক থাকার কোন যৌক্তিক কারনই থাকতে পারে না। আসন আলাদা হলে দোহার-নবাবগঞ্জের উন্নয়ন আরো বেগবান হবে বলে আমি মনে করি।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক ও সুপ্রিম কোর্ট বারের সদস্য নুরে আলম উজ্জ্বল নিউজ৩৯কে ঢাকা-১ সংসদীয় আসনের পুন বিন্যাস নিয়ে বলেন, আগে তো দুই ভাগই ছিল। আগের আসন বিন্যাসে ফিরে যাওয়াই ভাল। দুইটি আসন হলে দুই জন এমপি হবে, এলাকার উন্নয়নে বরাদ্ধ বাড়বে। বাড়বে এই দুই উপজেলার মানুষের সাথে মানুষের সম্প্রীতি। তাই উন্নয়নের স্বার্থে, মানুষের স্বার্থে আসন দুইটি আলাদা করাই উচিত।

বিশিষ্ট শিল্পপতি ইঞ্জিনিয়ার মেহবুব কবির নিউজ৩৯কে ঢাকা-১ সংসদীয় আসনের পুন বিন্যাস নিয়ে বলেন, সার্বিক ভাবে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য না রেখে দুটি আসন ভাগ করলে আমাদের সকলেরই সুবিধা হবে।

নবাবগঞ্জ উপজেলার গালিমপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও ঢাকা জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক তপন মোল্লা নিউজ৩৯কে ঢাকা-১ সংসদীয় আসনের পুন বিন্যাস নিয়ে বলেন, ২০০৯ সালেই নির্বাচন কমিশনে আমি ও সাবেক মন্ত্রী বর্তমান বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুল মান্নান এই বিষয়ে আবেদন করেছিলাম। কিন্তু শুনানিতে নির্বাচন কমিশন আমাদের মনে হয়েছে তারা প্রভাবিত হয়ে আবেদনটি বাতিল করে। আমরা সব সময় আসনটি পূর্বের অবস্থায় ফিরে যাক।

উল্লেখ্য নবাবগঞ্জের সাবেক এমপি হারুনুর অর রশিদ এবং গ্রাজ্যুয়েট এসোসিয়েশন অব দোহারের প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি মোঃ আইয়ুব আলী গত ৬ই ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনে ঢাকা – ০১ সংসদীয় আসন পূণার্বিন্যাস শিরোনামে আবেদন করেন। ডাইরী নং – ১৭২৬। এই ব্যাপারে নিউজ৩৯ ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ বিস্তারিত প্রতিবেদন করে।

দোহার–নবাবগঞ্জ আসন আলাদা চাই, চাই নাঃ নিউজ৩৯ কে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সাক্ষাৎকারঃ পর্ব – ১

Comments

comments