শয়তানের এক হাত ইরান, আরেকটি তুরস্ক: সৌদি যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমান

264
মুহাম্মদ বিন সালমান
মুহাম্মদ বিন সালমান

ইরান এবং কট্টরপন্থী ইসলামি দলগুলো নিয়ে গঠিত শয়তান নামের ত্রিভুজের(ট্রায়াঙ্গেল অব এভিল) তৃতীয় বাহুটি হলো তুরস্ক। বললেন সৌদি আরবের প্রভাবশালী যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান। মিশরের গণমাধ্যম আল-শরুকের বরাত দিয়ে একথা জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

প্রায় ১০০ বছর আগে অটোমান সম্রাজ্যের পতনের মাধ্যমে বিলুপ্ত হওয়া ইসলামি খিলাফতকে তুরস্ক পুনরায় প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টা চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন সৌদি যুবরাজ।

তার এই বক্তব্যে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের প্রতি সৌদি আরবের গভীর সন্দেহের বিষয়টি প্রতিফলিত হয়েছে, যার দলের মূলে রয়েছে ইসলামি রাজনীতি। এছাড়া সৌদি আরব এবং কয়েকটি উপসাগরীয় দেশের সঙ্গে কাতারের দ্বন্দ্বে দেশটির পক্ষ নিয়েছে তুরস্ক।

মধ্যপ্রাচ্যে সৌদি আরবের ঘোর প্রতিদ্বন্দ্বী ইরানের সঙ্গেও কাজ করছে তুরস্ক। সাম্প্রতিক মাসগুলোতে দক্ষিণ সিরিয়ায় চলমান যুদ্ধ অবসানেও একসঙ্গে কাজ করেছে তারা। এছাড়া গত বছর ইরানি ও তুর্কি সেনাপ্রধানেরা একে অপরের দেশ সফর করেছে।

কায়রো সফরের সময় মিশরিয় গণমাধ্যমের সম্পাদকদের এসব কথা বলেন যুবরাজ। গত বছর অন্যতম তেল রপ্তানিকারক দেশ সৌদি আরবের ক্ষমতার উত্তরাধিকারী হওয়ার পর এটিই তার প্রথম বিদেশ সফর।

অন্য খবর  সিরিয়ার পরিস্থিতি আসলে কোন পর্যায়ে আছে?

Comments

comments