নবাবগঞ্জে বিএনপির দুই পক্ষের সভাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ: আহত- ৩০

263

৫০ জনের নামে মামলা

ঢাকার নবাবগঞ্জে একই স্থানে বিএনপির দুই পক্ষের সভা আহ্বানকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ঢাকা জেলা বিএনপি’র সভাপতি আব্দুল মান্নান সহ প্রায় ৩০ জন আহত হয়েছে। সংঘর্ষ চলাকালে আব্দুল মান্নানের গাড়ি ভাংচুর করে বিক্ষুব্ধরা। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ৯ই এপ্রিল শনিবার নবাবগঞ্জ উপজেলার শিকারীপাড়া ইউনিয়নের গরিবপুর খেলার মাঠে সভা ডাকেন সাবেক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী  এবং ঢাকা জেলা বিএনপি’র সভাপতি আব্দুল মান্নানের নেতাকর্মীরা। অন্য দিকে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য খন্দকার আবু আশফাকের অনুসারীরা একই স্থানে সভা আহ্বান করলে সভার আগের রাত থেকেই দুই পক্ষের কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করেছিল। শনিবার সকাল ১০টা ৩০ মিনিটের দিকে নবাবগঞ্জ উপজেলার কাশিমপুর এলাকা দিয়ে আব্দুল মান্নানের গাড়িবহর শতাধিক মোটরসাইকেল মহড়া দিয়ে গরিবপুর মাঠে যাওয়ার সময় খন্দকার আবু আশফাক গ্রুপের কর্মীরা তাদের ওপর চড়াও হয়ে ধাওয়া করলে আব্দুল মান্নানের নেতাকর্মীদের সাথে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনায় আব্দুল মান্নানসহ তার দেহরক্ষী, ড্রাইভারসহ প্রায় ৩০ জন আহত হয়। পরে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে পরিস্থিতি  স্বাভাবিক হয়।

এ ব্যাপারে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও নবাবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান খন্দকার আবু আশফাকসহ প্রায় ৫০ জনকে আসামী করে নবাবগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন নবাবগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি।

Comments

comments