জয়পাড়া কলেজে এইচ.এস.সি পরিক্ষার্থীদের বিদায় ও পুরষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠান

444

কাজি জিয়াদ♦

৩১ মার্চ, বৃহস্পতিবার জয়পাড়া কলেজে বার্ষিক পুরষ্কার বিতরনী, দোয়া মাহফীল ও একাদশ শ্রেনীর বিদায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী ও জয়পাড়া কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি আব্দুল মানান খান এমপি। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন থানা নির্বহী কর্মকতা রথীন্দ্রনাথ দত্ত, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলী আহসান খোকন শিকদার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আনাকলি পুতুল সহ গভর্নিং বডির অন্যান্য সদস্য। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জয়পাড়া কলেজ শাখার ছাত্রলীগের বিভিন্ন ছাত্রনেতা। জয়পাড়া কলেজের অধ্যক্ষ মোয়াজ্জেম হোসেনের সভাপতিত্বে প্রবিত্র কোরআন তেলাওয়াত ও গীতা পাঠের মাধ্যমে অনুষ্ঠাটি বেলা ১২টার নগাদ শুরু হয়। অনুষ্ঠানের শুভেচ্ছো বক্তব্য রাখেন জয়পাড়া কলেজের সাবেক ভিপি আলমাস উদ্দিন, ভিপি পদপ্রার্থী রাজীব শরীফ এবং ছাত্রলীগনেতা মো: চঞ্চল হোসেন। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্যে ছাত্রনেতারা প্রতিমন্ত্রীর নিকট জয়পাড়া কলেজে অনার্স কোর্স চালুসহ একটি একাডেমিক ভবন নির্মানের দাবী তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রথীন্দ্রনাথ দত্ত, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলী আহসান খোকন শিকদার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আনারকলি পুতুল। এছাড়াও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী আব্দুল মান্নান খান। প্রতিমন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন পরীক্ষার্থীরা যেন কোন প্রকার সময় অপচয় না করেন। এছাড়াও তিনি জয়পাড়া কলেজে অনার্স কোর্স চালু সহ একটি একাডেমিক ভবন ও একটি লাইব্রেরী নির্মানের প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন। তিনি তার বক্তব্যে আরও বলেন দোহারের জনগন চাইলে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা আড়িয়াল বিলে বিমান বন্দর নির্মান কাজ স্থগিতের আদেশ প্রত্যাহার করে নিবেন। প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য শেষে আসন্ন এইচ. এস.সি পরিক্ষায় অংশগ্রহনকারী শিক্ষার্থীদের ভাল ফলাফল করার লক্ষে আল্লাহর নিকট দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন জয়পাড়া মাহমুদীয়া আ’লীয়া মাদ্রাসার সহ: শিক্ষক জনাব মাওলানা আব্দুল শুকুর।

সবশেষে প্রতিমন্ত্রী জয়পাড়া কলেজে ২০০৯ সালের ডিগ্রি (পাস) পরীক্ষায় প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ তিনজন ছাত্রীর হাতে ক্রেস্ট তুলে দেয়া সহ ২০১০ সালের এইচ.এস.সি পরিক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত জয়পাড়া কলেজের ছাত্রী মানজুরা আক্তার মুক্তাকে একটি ল্যাপটপ প্রদান করেন।

JoyColl

Comments

comments