সেভিয়ার কাছে হেরে তৃতীয় স্থানেই রইল রিয়াল

42
সেভিয়ার কাছে হেরে তৃতীয় স্থানেই রইল রিয়াল

শিরোপা হাতছাড়া হয়েছে আগেই। লক্ষ্যটা এখন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে পেছনে ফেলে দ্বিতীয় হওয়ার। সেটা কাল রাতে বড় একটা ধাক্কাই খেল। সেভিয়ার মাঠে ৩-২ গোলে হেরে দুই ম্যাচ বাকি থাকতে পয়েন্ট তালিকার তৃতীয় স্থানেই রইল ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো বিহীন রিয়াল মাদ্রিদ।

স্কোরলাইন ৩-২ দেখালেও হারের ব্যবধানটা হতে পারত আরও বড়। পুরো ম্যাচে ৬৫ শতাংশ বল রিয়ালের পায়ে থাকলেও ৮৪ মিনিট পর্যন্ত যে ৩-০ গোলে এগিয়ে ছিল সেভিয়াই! শুরুটা করেন উইসাম বেন ইয়েদের, ২৬ মিনিটে বক্সের ভেতর বল পেয়ে এগিয়ে দেন দলকে। বিরতির ঠিক আগে ব্যবধান বাড়ান মিগুয়েল লায়ন। রিয়ালের ছন্নছাড়া রক্ষণভাগের ফায়দা উঠিয়ে স্টিভেন জনজির পাসে বল জালে জড়ান।

বিরতির পরও সার্জিও রামোসদের চাপে রাখে সেভিয়া ফরোয়ার্ড। তবে স্রোতের বিপরীততে ৫৭ মিনিটে পেনাল্টি পায় রিয়াল, সেই পেনাল্টি থেকে অবশ্য ব্যবধান কমাতে পারেননি রামোস। তাঁর ডান পায়ের শট পোস্টে লেগে ফিরে আসে। ৫৯ মিনিটে সেভিয়ার ব্যবধান বাড়াতে পারতেন লুইস মুরিয়েল, ফ্রাঙ্কো ভাসকেজের বাড়ানো বলে তাঁর শট ঠেকিয়ে দেন রিয়াল গোলরক্ষক।

ম্যাচের তখন ৬ মিনিট বাকি। পেনাল্টি মিসের অনুতাপে পুড়তে থাকা রামোসের হতাশা যেন ষোলকলা পূর্ণ হলো। গ্যাব্রিয়েল মার্কাডসের ক্রসে তাঁর মাথা ছুঁয়েই বল ঢুকল জালে, আত্মঘাতী গোলে স্কোরলাইন তখন ৩-০।

অন্য খবর  স্বপ্নযাত্রা অব্যাহত রাখবে ক্রোয়েশিয়া?

শেষের দিকে রিয়াল বড় পরাজয় এড়িয়েছে বোর্জা মায়োরাল ও রামোসের গোলে। ৮৭ মিনিটে মার্কো আসেনসিওর ক্রসে হেডে গোল করেন মায়োরাল। যোগ করা সময়ের শেষ মিনিটে পাওয়া পেনাল্টি থেকে গোল করেও হার দলের এড়াতে পারেননি রামোস। এই গোল করে অবশ্য অন্যরকম একটা ‘রেকর্ড’ করেছেন রিয়াল অধিনায়ক। লা লিগায় একই ম্যাচে পেনাল্টি মিস, আত্মঘাতী গোল ও পেনাল্টি থেকে গোল করা একমাত্র ফুটবলার এখন তিনিই!

Comments

comments