সিরাজদিখানে পরকীয়ার জেরে দোকানে ভাংচুর

257

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় পরকীয়ার জের ধরে দোকান ভাংচুর ও লুটপাট করে দু’জনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ উঠেছে। জানা যায়, একই উপজেলার মধ্যপাড়া ইউনিয়নের বাহেরকুচি গ্রামের আবদুল মালেকের মেয়ে লিজার সঙ্গে আড়াই বছর আগে বিয়ে হয় ইছাপুরা ইউনিয়নের পশ্চিম শিয়ালদী গ্রামের আবদুল রশিদের বড় ছেলে আবুল হোসেনর।

বিয়ের দু’মাস পরই নতুন বউ লিজা বাহের কুচি গ্রামের বাদল ও শরীফের সঙ্গে পরকীয়া ধরা পড়ে। লিজা বাদল, শরীফ, তার বাবা ও ভাইদের মিথ্যা কথা বলে বেশ কয়েকজন বাইরের লোক নিয়ে এসে আবুল হোসেনের দোকানে ঢুকে দোকান ভাংচুর করে এবং তার বাবা আবদুল রশিদ মৃধাকে (৬৫) ব্যাপক মারধর করে। এলাকার লোকজনের সহযোগিতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। আবদুল রশিদ মৃধা অভিযোগ করে জানান, আমার ছেলে ও আমাকে মারধর করে দোকানের নগদ টাকা পয়সা ও মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। আমি সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেই। বিষয়টি নিয়ে সিরাজদিখান থানায় একটি অভিযোগপত্র দায়ের করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সিরাজদিখান থানার ডিউটি অফিসার এএসআই সোহাগ মিয়া বলেন, সিরাজদিখান থানায় বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

অন্য খবর  সিরাজদিখান প্রেস ক্লাবের কমিটি ঘোষণা

 

Comments

comments