সালমান এফ রহমান ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে বন্ধ যাত্রা
বিজ্ঞাপন

অবশেষে অনেক আলোচনা ও সমালোচনার পর অবশেষে বন্ধ হলো নারিশার যাত্রার নামে অশ্লীল নৃত্য প্রদর্শনী।  নারিশা ইউনিয়নে গত কয়েক দিন ধরেই মিছিল, মিটিং ও অভিযানে সাময়িক বন্ধ হওয়ার পর অবশেষে স্থায়ী ভাবে বন্ধ হলো যাত্রার নামে অশ্লীল নৃত্য প্রদর্শনী। সালমান এফ রহমান ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের প্রত্যক্ষ হস্তক্ষেপে বন্ধ হলো এই যাত্রার নামে এই অশ্লীল নৃত্য প্রদর্শনী।

গত কয়েকদিন ধরেই যাত্রা বন্ধের দাবিতে উত্তাল দোহারের সচেতন সমাজ। দোহার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কে এম আল আমিন ৫ জানুয়ারী যাত্রা বন্ধে অভিযান পরিচালনা করলেও দুই দিন পর থেকেই আবার শুরু হয় যাত্রা। যুব সমাজকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাওয়া এই যাত্রা বন্ধে উদ্যোগ নেন দোহার উপজেলা চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন ও দোহার উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক আলমগীর হোসেন। দুই জনে উদ্যোগ নিয়ে একই সাথে তৈরি করেছেন জন সচেতনতা এবং যোগাযোগ করেছেন সালমান এফ রহমানের সাথে। সালমান এফ রহমান ঘটনা জানতে পেরে সেই সময়েই ফোন দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালকে। আসাদুজ্জামান খান কামাল দ্রুত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন দোহার থানা পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসনকে।

অন্য খবর  দোহারে ঢাকা জেলা প্রশাসকের ঝটিকা সফর

সেই নির্দেশ অনুযায়ী গত বুধবার রাতে দোহার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে যাত্রা বন্ধের লিখিত ঘোষনা দেন যাত্রার অন্যতম প্রধান উদ্যোক্তা আবুল কালাম হাওলাদার। এই সময় দোহার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসে কে এম আল আমিন ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান, দোহার উপজেলা চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, দোহার থানা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ সিরাজুল ইসলামসহ প্রশাসন ও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

Comments

comments