সলোর সলো ট্রিপ!

39
হ্যান সলো

স্টার ওয়ার্স-এর ভক্তরা অপেক্ষায় আছেন। অপেক্ষা আর খানিকটা সময়ের। না, সিরিজের নতুন কোনো কিস্তি নিয়ে আসছে না স্টার ওয়ার্স এবার। তবে মুক্তি পেতে চলেছে সিরিজটির অন্যতম এক চরিত্র হান সলোকে নিয়ে তৈরি নতুন এক গল্প—সলো: আ স্টার ওয়ার্স স্টোরি। না, কেবল নামেই নয়; মূলত স্টার ওয়ার্স-এর ফ্রাঞ্চাইজ হিসেবেই মুক্তি পেতে যাচ্ছে ছবিটি। তাই এর পরতে পরতে স্টার ওয়ার্স-এর গন্ধ পাবেন দর্শক। স্টার ওয়ার অ্যান্থলজির ওপরে ভিত্তি করে নির্মিত দ্বিতীয় ছবি এটি। এর আগে ২০১৬ সালে প্রথম কিস্তি হিসেবে রাগ ওয়ান মুক্তি পায়। সলো পরিচালনা করছেন রন হাওয়ার্ড। জনাথন এবং লরেন্স কাসদানের চিত্রায়ণে ছবিটিতে প্রযোজনা করছে লুকাস ফিল্ম।

ছবিটির গল্প আবর্তিত হয়েছে সলোকে নিয়ে। স্টার ওয়ার্স না, এর অনেক আগের কথা। কম বয়সী সলো কী করে চিউবাক্কার সঙ্গে ল্যান্ডো কার্লিসিয়ানের মোকাবিলা করে, সেটাই দেখানো হবে ছবিতে। তবে কেবল এটুকুই নয়, থাকছে তরুণ সলোর নানা রকম দুঃসাহসিক অভিযানের কথা। এতে মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন অ্যালডেন হেনরিক। সঙ্গে আরও থাকছেন উডি হ্যারেলসন, এমিলিয়া ক্লার্ক, ডোনাল্ড গ্লোভার, থ্যান্ডি নিউটন, জুনাস সুতামো এবং পল বেটানির মতো তারকারা।

অন্য খবর  মহুয়া সুন্দরীর শুটিং হবে নবাবগঞ্জে

সলোর যাত্রা কিন্তু খুব একটা সহজ হয়নি। পাইন উড স্টুডিওতে ২০১৭ সালে শুরু হয় সলোর কাজ ফিল লর্ড এবং ক্রিস্টোফার মিলারের পরিচালনায়। কিন্তু কিছুদিন বাদেই চিন্তাভাবনায় মিল না হওয়ায় ২০১৭ সালের জুলাই মাসে হাওয়ার্ড পুরো ব্যাপারটির দায়িত্ব নেন। অন্যদিকে সলো চরিত্রে বরাবরের মতো অভিনয় করে যাওয়া হ্যারিসন ফোর্ড নবাগত হেনরিককে পরামর্শ দিতে কার্পণ্য করেননি। হেনরিক তাঁর যথার্থ চেষ্টা করেছেন এবং ভালোভাবেই উতরে গিয়েছেন, এমনটাই ভাবছেন সমালোচকেরা। মূলত স্টার ওয়ার্স-এর সলো এবং সলোর সলো খানিকটা ভিন্ন। একটি বর্তমান, অপরটি অতীত। তাই ছবিতে নিজের চরিত্র খানিকটা বদলেছে বলে জানিয়েছেন সলো চরিত্রের অভিনেতারা। তরুণ সলো অনেক বেশি কল্পনাপ্রবণ। কিন্তু তার সেই চিন্তাগুলো একটু একটু করে ভেঙে যায় যখন বাস্তবতার মুখোমুখি হয় সে। একটু একটু করে এই তরুণ সলোই জীবনের বিভিন্ন ধাপ দেখে পরবর্তীতে সেই সলোতে রূপ নেয়, যাকে স্টার ওয়ার্স-এ দেখে অভ্যস্ত আপনি।

২০১২ সালে ডিজনি লুকাস ফিল্ম কিনে নেয়। তবে তার আগেই শুরু হয় হ্যান সলোর তরুণ বয়সের যাত্রা। পরবর্তী সময়ে প্রথমে লরেন্স কাসদান চিত্রনাট্য লিখলেও, এর ভার গিয়ে পড়ে ছেলে জনাথন কাসদানের হাতে। একটু একটু করে অনেক বাধা আর চড়াই পেরিয়ে অবশেষে মুক্তি পেতে চলেছে ছবিটি। এরই মধ্যে গত ১০ মে ছবিটির প্রদর্শনী হয়ে গিয়েছে লস অ্যাঞ্জেলসে। ২০১৮ কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালেও গত ১৫ মে প্রদর্শিত হয়েছে ছবিটি। অনেকেই বলেছেন নতুন করে তেমন কিছু দেখার নেই। তবে যথেষ্ট উপভোগ্য ছিল, সেটাও বলতে ভুলছেন না দর্শক। আগামীকাল ২৫ মে সবার জন্য সলোর দরজা খুলে যাবে। একই সময় থেকে বাংলাদেশে ছবিটি দেখা যাবে বসুন্ধরা সিটি স্টার সিনেপ্লেক্সে।

অন্য খবর  আমি একই সঙ্গে হিন্দু এবং মুসলমানঃ সালমান খান

Comments

comments