শেখ হাসিনার নজর যাদের দিকে

112

ডেস্ক রিপোর্ট : খুব নীরবে আওয়ামী লীগের পালাবদল হচ্ছে। পুরনো নেতৃত্ব সরে যাচ্ছে, নতুন নেতৃত্ব উদ্ভাসিত হচ্ছে। নতুনদের মধ্য থেকে যারা শেখ হাসিনার নজরে পড়েছেন এবং যাদেরকে শেখ হাসিনা আগামী নেতৃত্বের জন্য প্রস্তুত করেছেন তাঁদের কয়েকজনকে নিয়েই বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বাংলা ইনসাইডার। আমাদের  পাঠকদের জন্য প্রতিবেদনটি তুলে ধরা হলো।

শেখ ফজলে নূর তাপস: শেখ ফজলে নূর তাপসের রক্তই হলো আওয়ামী লীগের রক্ত। তার বাবা শেখ ফজলুল হক মনি যখন মারা যায় তখন তিনি ছিলেন নাবালক শিশু। তাপসকে একরকম কোলেপিঠেই মানুষ করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। কিন্তু ওয়ান ইলেভেনের আগে তাপস প্রাদপ্রদীপে আসেননি। কিন্তু ওয়ান ইলেভেনে যখন আওয়ামী লীগের ডাকসাইটে নেতারা শেখ হাসিনাকে আইনী সহায়তা দিতে অস্বীকৃতি জানান তখন জুনিয়র আইনজীবী হলেও তাপসই শেখ হাসিনার পাশে দাঁড়ান। তারপর ২০০৮ এর নির্বাচনের পর থেকে পরপর তিনবার এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। রাজনীতির মাঠে তাঁকে দেখা যায় কম কিন্তু শেখ হাসিনা নিরবে-নিভৃতে তাপসকে গড়ে তুলছেন আগামীর নেতা হিসেবে।

শেখ তন্ময়: শেখ তন্ময় শেখ হেলালের ছেলে, তৃতীয় প্রজন্মের আওয়ামী লীগ নেতা। এবারের নির্বাচনে শেখ তন্ময়ের মনোনয়নটি ছিল একটি বিস্ময়। শেখ হাসিনার খুব কাছের এই তরুণকে গড়ে তোলা হচ্ছে আগামীর নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য।

অন্য খবর  ধসে পড়ার উপক্রম ইছামতির পাড়

ডা. দিপু মনি: ডা. দিপু মনি তাঁদের তুলনায় তরুণ নন কিন্তু রাজনীতিতে তো অবশ্যই তরুণ। দিপু মনি হলেন সেই ভাগ্যবানদের একজন যিনি প্রথমবার মন্ত্রিত্ব পাওয়ার পর দ্বিতীয় দফায় মন্ত্রিত্ব হারিয়েছেন আবার মন্ত্রিত্বে এ দফায় ফিরে এসেছেন। তারমধ্যে নেতৃত্বের অনেকগুলো গুণাবলি আছে। তিনি শেখ হাসিনার শুধু ঘনিষ্ঠই নন রাজনীতিতে সাজেদা চৌধুরী, জোহরা তাজউদ্দিন, আইভী রহমানের উত্তরসূরি মনে করা হয় তাঁকে। শেখ হাসিনা তাঁকেও যে বিকশিত করতে চান তা স্পষ্ট।

এনামুল হক শামীম: এনামুল হক শামীম ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়ছেন, এবার প্রথমবারের মত এমপি নির্বাচিত হয়েছেন এবং তাঁকে করা হয়েছে উপমন্ত্রী। শেখ হাসিনার আস্থাভাজন যে সকল প্রাক্তন ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ রয়েছেন তারমধ্যে শামীম একজন। শামীমকে বলা যায় শেখ হাসিনা নিজের হাতেই তৈরি করছেন আগামীর নেতৃত্বের জন্য। এনামুল হক শামীম যদি ভবিষ্যতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক হন তাহলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

ইকবালুর রহিম: ইকবালুর রহিম একসময় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন এবং চারবারের নির্বাচিত এমপি। এনামুল হক শামীমকে সংসদীয় ধারায় তৈরি করছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি। আগামীদিনের রাজনীতিবিদ হিসেবে তাঁকেও প্রস্তুত করছেন শেখ হাসিনা।

অন্য খবর  নোবেল পেতে প্রধানমন্ত্রীকে যে পরামর্শ দিলেন গোলাম সারওয়ার

খালেদ মাহমুদ চৌধুরী: খালেদ মাহমুদ চৌধুরী আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। এবার তাঁকে নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী করা হয়েছে। তার মধ্যেও নেতৃত্বের গুণাবলি আছে। সেই নেতৃত্বের গুণাবলিকে শেখ হাসিনা বিকশিত করতে চাইছেন।

মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল: আওয়ামী লীগ সভাপতির অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ মহিউদ্দিন চৌধুরীর ছেলে মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। সন্তানতুল্য এই নবীণ নেতাকে শেখ হাসিনা গড়েপিটে তৈরি করছেন। তাঁকে পাদপ্রদীপে আনতে এতটুকু কার্পণ্য করছেন না। আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বানিয়েছেন। শিক্ষা উপমন্ত্রিত্ব দিয়ে এবার তার নেতৃত্ব বিকাশের সুযোগ করে দিয়েছেন।

এছাড়াও আরও অনেক নেতা আছেন যারা শেখ হাসিনার সাহচর্যে বেড়ে উঠছেন। একটা প্রজন্ম শেষে তাঁরা যখন চলে যাবেন তখন যেন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বের ঘাততি না থাকে এবং আওয়ামী লীগের যেন ছন্দপতন না হয় সেজন্য খুব নীরবে শেখ হাসিনা কিছু কিছু নেতৃত্বকে বিকশিত করে তুলছেন এরা তাদেরই কয়েকজন।

Comments

comments