রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তার করে সাংবাদিক তারেক ফকিরের নামে মিথ্যা মামলা

97

রাজবাড়ী জেলার আরডিসি/নিউজ ২৪ প্রতিনিধি মোঃ তারেক ফকিরকে হয়রানি করার জন্য রাজনৈতিক প্রভাববিস্তার করে মিথ্যা মামলা দিয়ে আসামি করা হয়েছে। তারেক ফকির বলেন, মামলার বিষয়টি তিনি ০৫-০২-২০২১ তারিখে মানিকগঞ্জ শহরে ব্যক্তিগত একটি কাজে গিয়েছিলো। হঠাৎ একটি অপরিচিত নাম্বার থেকে ফোন আসে। ফোনটি ধরার পর পরিচয় জানতে চাইলে,পি বি আই পুলিশ গৌরাঙ্গো জানান, তার নামে মামলা হয়েছে। আরডিসি/নিউজ ২৪ রিপোটার তারেক আরো বলেন, মামলা হওয়ার পরে জানতে পারি পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মামলাটি করা হয়েছে । যেহেতু বাদী ফাতেমা মেম্বার এখন প্রতিশোধপরায়ণ হয়ে উঠেছেন আর কিছু স্বার্থনেষী লোক স্বার্থ উদ্ধারের নেশায় তাকে ব্যবহার করছে। এবং যারা আট জন সাক্ষাত কার দিয়েছে তাদের মধ্য থেকে মাত্র দুই তিন জনকে আসামি করা হয়েছে। তার কথার ইঙ্গিতে জানতে পারি উপর মহলের কেউ তাকে দিয়ে এ কাজ করাচ্ছে। আরডিসি/নিউজ ২৪ প্রতিনিধি আরো বলেন, আমি ছোট থেকে কোন অন্যায় সহ্য করতে পারি না। আমি ২০২১সালের ডিসেম্বর মাসে সাভার গণ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বি বি এ শেষ করে। এখন ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ে এম বি এ অধ্যয়ন করি।শখের বশে নয়,রাষ্ট্রীয় নিদের্শনা মেনে, পড়াশোনার পাশাপাশি সাংবাদিকতা করি । সম্পূর্ণ বস্থনিষ্ঠ একটি খবর নিয়ে এধরণের মামলা উদ্দেশ্য প্রণোদিত, এবং গণমাধ্যমের জন্য হুমকি স্বরুপ ।
বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশের পরও আমার নামে মামলা করা হয়েছে। মূলত সাংবাদিকদের পেশাগত দায়িত্ব পালনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি। নাকি তিনি তাদের সাথে আমার উপর ও প্রতিশোধ নিতে চাচ্ছেন এ বিষয় নিয়ে চিন্তিত । এখন রাজনৈতিক মহল থেকে আসছে বিভিন্ন ভাবে চাপ।মামলাটি করেছেন সাইবার ট্রাইব্যুনাল (বাংলাদেশ) ঢাকা সুএ :পিটিশন মামলা নং- ২৯৩/২০২০ ধারা ডিজিটাল নিরাপওা আইন ২০১৮এর ২৪(১)এর ই(১)এর (ক)২৯(১),৩৫ মামলায় আসামি করা হয়েছে: মিজানুর রহমান মজনু (জেলা পরিষদের সদস্য) কালুখালী (উপজেলার সাংগঠনিক সম্পাদক) রোকনুউজ্জামান রোকন মদাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি। মো:তারেক ফকির আরডিসি/নিউজ বাংলা রাজবাড়ী জেলার রিপোর্টার, ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের( এম. বি. এ)পড়ুয়া ছাএ। *ফজলু মন্ডল *রবিউল ইসলাম খন্দকার (বাজবাড়ী টিভি নিউজ রিপোর্টার) *মোর্শেদা বেগম( মেম্বার) বাদী ফাতেমা বেগম মেম্বার ইউনিয়ন পরিষদ মদাপুর, সভাপতি মহিলা আওয়ামীলীগ ৪নং ওয়ার্ড মদাপুর ইউনিয়ন। মামলাটি তদন্ত চলছে পি বি আই পুলিশের হাতে মামলাটির তদন্ত শুরু হয়েছে। তদন্ত শেষে আদালতে প্রতিবেদন জমা দিবে। প্রসঙ্গত, গত ০৫-০৯-২০২০ তারিখে আরডিসি/ নিউজ ২৪ থেকে বাদী ফাতেমা বেগম মেম্বার ইউনিয়ন পরিষদ মদাপুর ও তার মেয়ের অসামাজিক কার্যকালাপের ব্যপ্যারে মো:আসাদুউজ্জামান তুরান (মেম্বার), মোর্শেদা বেগম (মেম্বার,) মো:তোফাজ্জেল হোসেন (মেম্বার), মো:আব্দুল লতিফ শেখ (মেম্বার), মো:নৃর ইসলাম বাবু (মেম্বার), মো:বিল্লাল খান (মেম্বার),মো:জিলাল মোল্লা (মেম্বার),মো:হাবিব খাঁ (মেম্বার) এদের ভিডিও সাক্ষাত কারের মাধ্যমে নিউজটি করা হয়।বাদী ফাতেমা কে কয় এক বার ফোন ও দেওয়া হয়!কিন্তু তিনি ফোন ধরেন নি। পরে তার বাড়িতে গিয়ে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সরাসরি হুমকি সহ বাড়ি থেকে বেড় হওয়ার জন্য সময় নির্ধারণ করে দেন।খারাপ আচারণ করেন ও বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন।পরে বাধ্য হয়ে ফিরে আসতে হয়। প্রকাশিত সংবাদের সব তথ্য উপাত্ত তার কাছে রয়েছে।
রাজবাড়ী জেলার প্রতিনিধি তারেক বলেন, আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই মামলাটি আইনগত ভাবেই মোকাবিলা করা হবে।

অন্য খবর  শোভন-রাব্বানী অপসারিত

Comments

comments