মিয়ানমারের দিকে যাচ্ছে ‘মোয়াস’

53

রোহিঙ্গাদের বাঁচাতে এশিয়া যাচ্ছে দ্য মাইগ্রেন্ট অফশোর এইড স্টেশন (মোয়াস)। ভূমধ্যসাগরীয় উদ্ধারকর্মী জাহাজ মিয়ানমারের দিকে যাচ্ছে। ২০১৪ থেকে ভূমধ্যসাগর অঞ্চলে অভিবাসীদের উদ্ধারে কাজ করা এই সংস্থাটি মাল্টা থেকে তাদের উদ্ধারকারী জাহাজকে বঙ্গোপসাগরে পাঠাচ্ছে। খবর বিবিসির।

সংস্থাটি জানিয়েছে, এ পর্যন্ত তারা ৪০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা মুসলিমকে উদ্ধার করেছে। এতদিন এই সংস্থাটি মূলত লিবিয়া থেকে ভূমধ্যসাগর হয়ে ইউরোপে পাড়ি দেয়া অভিবাসীদের বাঁচাতে কাজ করে আসছে। এখন মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের উদ্ধারে এগিয়ে আসছে তারা।

জাতিসংঘের হিসাব অনুযায়ী, মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে প্রায় ৮৭ হাজার রোহিঙ্গা মুসলিম। বিপুল সংখ্যক রোহিঙ্গা পালিয়ে আসার ঘটনার পরই সংস্থাটি রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্তে নিয়েছে।

সংস্থাটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তাদের উদ্ধারকারী জাহাজটির মিয়ানমারের কাছে পৌঁছাতে প্রায় তিন সপ্তাহের মতো সময় লাগবে। সেখানে গিয়ে রোহিঙ্গা গোষ্ঠীকে মানবিক ও প্রয়োজনীয় সাহায্য, সহযোগিতা দেবে তারা।

রোহিঙ্গা সংকটে দেশটির নেত্রী অং সান সু চির ভূমিকার সমালোচনা করেছেন মিয়ানমার বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ দূত ইয়াংহি লি।

তিনি বলেছেন, ‘মিয়ানমারের নেত্রীকে অবশ্যই পদক্ষেপ নিতে হবে। আমরা যে কোনো দেশের সরকারের কাছ থেকেই আশা করি যে তারা তাদের নিজের এলাকার সবাইকেই রক্ষা করবে। যদিও সু চি একটি কঠিন অবস্থানের মধ্যে আছেন, তবুও আমার মনে হয় তার এখন সেখান থেকে বেরিয়ে আসার সময় হয়েছে।’

অন্য খবর  যৌনাঙ্গে স্ত্রীর লাথিতে স্বামীর মৃত্যু

মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর নির্যাতন, নিপীড়ন, হত্যা, ধর্ষণ থেকে বাঁচতে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিচ্ছে রোহিঙ্গারা।

 

Comments

comments