মিষ্টির মিষ্টতায় জীবনকে মিষ্টি করেছেন ইতালী প্রবাসী দোহারের দুই বন্ধু!

921
মিষ্টির মিষ্টতায় জীবনকে মিষ্টি করেছেন ইতালী প্রবাসী দোহারের দুই বন্ধু!

পরিবারকে ভাল রাখতে, নিজে ভাল থাকতে, দেশের প্রবৃদ্ধি বাড়াতে মানুষ পরবাসি হয়। ভাগ্যান্বেষণে পরিবার-পরিজনকে ছেড়ে দূর পরবাসি এই মানুষগুলো কখনো ভাগ্যবিড়ম্বিত হয়ে নিদারুণ কষ্ট ভোগ করে। কেউ আবার সংগ্রাম করতে করতে এক সময় নিজের ভাগ্যকে নিজের করে নেয়। তেমনি ইতালী প্রবাসী দুই বন্ধু জিল্লুর রহমান ও জাওয়ার হোসেন। যারা নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তনের আশায় একদিন পাড়ি জমিয়েছিলেন ইউরোপের দেশ ইতালীতে। ভাগ্য বিড়ম্বিত হয়েও ছিলেন। কিন্তু বুদ্ধি, চেষ্টা, শ্রম, একাগ্রতা দিয়ে ভাগ্যকে নিজের করে নিয়েছেন তারা।
২০০০ সালের কথা। ইতালীতে পাড়ি জমান ঢাকা দোহার বাসিন্দা জিল্লুর রহমান পাঠান। কাজ করেন সিপইয়ার্ড ফিনকাতেয়ারিতে। কিন্তু তাতে করে কিছুই করতে পারেননি তিনি। পরবর্তীতে তার বন্ধু জাওয়ার হোসেন ইতালীতে আসেন। কয়েকবছর কাজ করার পর দুই বন্ধু সিদ্ধান্ত নেন আর অন্যের অধীনে কাজ নয়। এবার নিজেদেরই কিছু করতে হবে। যে কথা সেই কাজ। দুই বন্ধু মিলে ২০১৫ সালে ইতালীর পর্যটন নগরী হিসেবে পরিচিত ভেনিস শহরের মেসরে গড়ে তোলেন ‘আল মদিনা বাংলা মিষ্টি ঘর’। সেই শুরু আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাদের। ব্যবসা জমে উঠে বছর না ঘুরতেই। এখানকার সকল খাবারই গ্রাহকদের মন কারে। পরিচিত হতে থাকে সর্বময়। শুধু ভেনিস নয়, এর আশপাশের শহর হতে অনেক ক্রেতা আসেন মিষ্টি ও খাবার কিনতে। বর্তমানে ৫ জন বাংলাদেশি কর্মচারি কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করছে তাদের এই প্রতিষ্ঠানে।

অন্য খবর  দোহার নবাবগঞ্জ ঐক্য পরিষদ ফ্রান্সের ঈদ পূর্নমিলনী অনুষ্ঠিত

Comments

comments