মাশরাফিদের বোলিং ক্যাম্প শুরু

120
মাশরাফিদের বোলিং ক্যাম্প শুরু

আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই শুরু হবে পেস বোলারদের নিয়ে বোলিং ক্যাম্প। ছুটি কাটিয়ে এরই মধ্যে ঢাকায় ফিরেছেন বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ। তার সঙ্গে আলোচনা করে নির্ধারিত হবে পেস বোলিং ক্যাম্পের দিন-তারিখ। সেটা দুই-একদিনের মধ্যে হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। তবে এরই মধ্যে পেস বোলারদের ১৫ জনের তালিকা করে ফেলেছেন নির্বাচকরা। এখানে জাতীয় দলের বাইরে এইচপি (হাইপারফরম্যান্স দল) ও প্রথম শ্রেণির অভিজ্ঞতাসম্পন্ন পেসাররা রয়েছেন।

এদিকে সবকিছু চূড়ান্ত হতে আরও দুই-একদিন সময় লাগবে বলে জানালেন, ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান আকরাম খান।  রবিবার মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে আকরাম খান এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘এখনো দিন-তারিখ চূড়ান্ত হয়নি। তবে দুই-একদিনের মধ্যে সবকিছু চূড়ান্ত হবে। এরই মধ্যে প্রাথমিকভাবে ১৫ জন পেসারও ঠিক হয়ে গেছে। আমরা কালকের মধ্যে হয়তো খেলোয়াড়দের চূড়ান্ত তালিকাটা দিতে পারবো। এই তালিকাতে জাতীয় দলের বাইরে এইচপি (হাইপারফরম্যান্স দল) ও প্রথম শ্রেণির অভিজ্ঞতাসম্পন্ন পেসাররাও থাকবে।’

বোলিং ক্যাম্প কবে থেকে শুরু হচ্ছে সেটির তারিখ এখনো নির্ধারণ না করলেও বিসিবি সূত্রে জানা গেছে, ২০ কিংবা ২১ জুলাই থেকে শুরু হবে পেসারদের ক্যাম্প। চলবে ২৮ জুলাই পর্যন্ত। যে কারণে একটু তড়িঘড়ি করেই ঢাকায় চলে এসেছেন বোলিং কোচ। তার ফেরার কথা ছিল ২০ জুলাই।

অন্য খবর  এবার তামিমের নজর পাকিস্তানের দিকে

গত কয়েকটি সিরিজে বাংলাদেশ ভালো ক্রিকেট খেললেও পেস বোলিং বিভাগ শতভাগ নৈপুণ্য দেখাতে পারেনি। বিশেষ করে নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের পেস সহায়ক উইকেটে বাংলাদেশের পেস বোলাররা তেমন কিছুই করতে পারেননি। অথচ চ্যাম্পিয়নস ট্রফি ও আয়ারল্যান্ড সফরে বোলিংয়ের মূল দায়িত্বটা ছিল তাদের কাঁধে। পেসারদের এই ব্যর্থতা নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও (বিসিবি)।

আর এই কারণেই মূলত চলতি কন্ডিশনিং ক্যাম্পের মধ্যেই পেসারদের নিয়ে আলাদা করে কাজ করবেন বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ। তেমন আভাস দিয়েছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নুও, ‘পেস বোলারদের নিয়ে এই ক্যাম্পটির পরিকল্পনা বেশ আগে থেকেই ছিল। ক্যাম্পে জাতীয় দলের বাইরে থাকা কয়েকজন পেসারও অংশ নেবেন। মোট ১৫ জন পেসারকে নিয়ে চলবে ওয়ালশের এই ক্যাম্প।’

Comments

comments