মাদক-সন্ত্রাসমুক্ত দেশ গঠনে যুব সমাজকে এগিয়ে আসতে হবেঃ সালমা ইসলাম এমপি

127
সালমা ইসলাম এমপি

আগামী প্রজন্মের জন্য একটি সুখী, সুন্দর, নিরাপদ দেশ গঠন করতে হবে। মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত এলাকা গঠনে যুব সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে। মঙ্গলবার সকালে দোহারের মোকসেদপুর, বিলাসপুর, সুতারপাড়া ও নারিশা ইউনিয়নের দরিদ্র অসহায় নারী-পুরুষের মধ্যে শাড়ি, লুঙ্গি বিতরণের সময় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি এ কথা বলেন।

শাড়ি, লুঙ্গি নিতে আসা অপেক্ষমাণ নারী-পুরুষদের উদ্দেশে সালমা ইসলাম বলেন, দোহারে চরাঞ্চলের মানুষের প্রধান সমস্যা পদ্মার নদী ভাঙন। আমি আপনাদের কথা দিয়েছিলাম সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে ভাঙন রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব। পদ্মার ভাঙন রোধে ২১৭ কোটি টাকার বরাদ্দ পাস করিয়ে আপনাদের কাছে দেয়া প্রতিশ্র“তি রক্ষা করেছি। আগামী নির্বাচনে নিশ্চয়ই আপনারা সেই বিষয়টি লক্ষ্য রাখবেন। এছাড়া জিনজিরা-কেরানীগঞ্জ-নবাবগঞ্জ-দোহার ও শ্রীনগর আঞ্চলিক মহাসড়কের উন্নয়নে ৪৬৯ কোটি টাকার প্রকল্পের কাজ চলমান আছে। আরও বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে আমার প্রচেষ্টায় দোহার ও নবাবগঞ্জের অধিকাংশ এলাকায় এখন বিদ্যুতের আলো পৌঁছে গেছে। সড়ক ও ব্রিজ তৈরি হয়েছে, যা গত ৪৭ বছরেও হয়নি। উন্নয়ন অব্যাহত আছে, ভবিষ্যতেও চলবে।

আপনাদের সহযোগিতা অব্যাহত থাকলে দোহার ও নবাবগঞ্জের সব উন্নয়ন কাজ সমাপ্ত করব ইনশাআল্লাহ। আপনাদের যে কোনো উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে আমার সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। আগামী নির্বাচনে আপনারা আমার পাশে থাকলে কৃষি ও প্রবাসী অধ্যুষিত দোহার ও নবাবগঞ্জ হবে সারা দেশের মধ্যে একটি উন্নয়নমুখী মডেল অঞ্চল। যেখানে মানুষ নিরাপদে বসবাস করবে। এই অঞ্চলে কোনো সন্ত্রাসী ও অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চলবে না। সন্ত্রাসীদের কোনো দল নেই। আমাদের প্রতিবাদ করতে হবে। আমাদের সন্তান যেন মাদক নামক ভয়াল নেশার কবলে না পড়ে সবাইকে সচেতন হতে হবে। তাদের সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার দায়িত্ব আমার-আপনার সবার। সাবেক প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সময়ে দোহার নবাবগঞ্জের মানুষ নিরাপদ ও শান্তিতে জীবনযাপন করছে। আমি চাই, আপনারা ভালো থাকুন। কারও দয়ায় নয়, নিজেরা আত্মনির্ভরশীল হোন। আমি আপনাদের সঙ্গে আছি। আগামী দিনগুলোতে থাকব।

অন্য খবর  বিএনএফ থেকে আজাদ আউট, নাজমুল হুদাকে ইনের ঘোষণা

নিজস্ব অর্থায়নে সংসদ সদস্য সালমা ইসলাম মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দোহারের ৪টি ইউনিয়নের প্রতিটিতে প্রায় সহস াধিক শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরণ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা খন্দকার নুরুল আনোয়ার বেলাল, ঢাকা জেলার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহমেদ, ইউপি চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন মোল্লা, সালাহউদ্দিন দরানী প্রমুখ।

Comments

comments