ব্রিটিশ এমপিদের কেরানীগঞ্জে পথশিশু হোম পরিদর্শন

391

পথশিশুদের স্থায়ী নিবাস লিডো পিস হোম পরিদর্শন করেছেন ব্রিটিশ এমপিরা। গত ১৩ ফেব্রুয়ারি সোমবার সকাল নয়টায় ঢাকার কেরানীগঞ্জ সংলগ্ন ওয়াশপুরে অবস্থিত পিস হোম পরিদর্শনে যান ব্রিটিশ লেবার পার্টির পার্লামেন্ট সদস্যরা। ১২ সদস্যের পরিদর্শক দলে উপস্থিত ছিলেন দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ছায়ামন্ত্রী ও বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ড. রুপা হক এমপি, সাবেকমন্ত্রী ও ব্রিটিশ পার্লামেন্টের চিফ হুইপ রোজি উইন্টারটন ও ব্রিটেনের ছায়া স্বাস্থ্যমন্ত্রী জনাথন এশওরথসহ লেবার পার্টির অন্যান্য সদস্যরা। ব্রিটিশ-বাঙালি কমিউনিটির মাধ্যমে বাংলাদেশের পথশিশুদের দুরবস্থা জেনে বাস্তব চিত্র পরিদর্শন করতেই লিডোর হোম পরিদর্শনে যান বিশেষ প্রতিনিধি দলচি। হোম পরিদর্শনকালে লিডোর কার্যক্রম ও কার্যপদ্ধতি সম্পর্কে জানা, পথশিশুদের বিদ্যমান অবস্থা পর্যালোচনা, প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী এবং শিশুদের তৈরি বিভিন্ন হস্তশিল্প পরিদর্শন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের বিভিন্ন কার্যক্রমে অংশ নেন ব্রিটিশ প্রতিনিধিদল। এছাড়া পথশিশুদের দুরবস্থা পর্যালোচনা ও করণীয় শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় শিশুদের সাথে অংশ নেন তারা। ব্রিটিশ লেবার পার্টির সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা ও পরিদর্শনের সময় উপস্থিত ছিলেন লোকাল এডুকেশন এন্ড ইকোনোমিক ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের (লিডো)নির্বাহী পরিচালক ফরহাদ হোসেন, প্রতিষ্ঠাতা ও  পরিচালক (ফিনান্স) মুরশিদা আক্তার কান্তা, বাংলাদেশ ক্রিকেট কোচ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও লিডোর উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য হেলালুদ্দিন লিটন ও ডেনফোরড ট্রাস্ট ইউকের ভাইস চেয়ারম্যান মাইক শেরিফসহ লিডোর অন্যান্য কর্মকর্তারা।

অন্য খবর  কারাগার থেকে ছাড়া পেলেন গয়েশ্বর

উল্লেখ্য, পথশিশুমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে আসছে লিডো। পথের অসহায় ও অনিরাপদ জীবন থেকে শিশুদের মুক্ত করে পরিবারে পুনর্বাসন এবং পরিবারহীন শিশুদের দীর্ঘমেয়াদি পুনর্বাসন কেন্দ্রে পাঠানোর প্রক্রিয়ায় নিরলস কাজ করে যাচ্ছে সংস্থাটি। সংস্থার বর্তমান কার্যক্রমের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল, স্কুল আন্ডার দ্য স্কাই, মোবাইল স্কুল, ট্রান্জিশনাল সেল্টার-সেতু, স্থায়ী নিবাস পিস হোম ইত্যাদি। ঝটিকা পরিদর্শন শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের নানা প্রশ্নের জবাব দেন লেবার পার্টির সদস্যরা। পথশিশু সংকট মোকাবেলায় ব্রিটিশ-বাংলাদেশ যৌথভাবে কাজ করবে বলেও আশ্বাস দেন চিফ হুইপ রোজি উইন্টারটন।

পরিদর্শন শেষে রাষ্ট্রপতি, স্পিকার ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সঙ্গে সাক্ষাতের উদ্দেশ্যে পিস হোম ত্যাগ করেন ব্রিটিশ প্রতিনিধিদলটি।

Comments

comments