ব্রাজিলের বিপক্ষেও নেই মেসি

14
মেসি

সামনের মাসে দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলবে আর্জেন্টিনা, যার একটিতে তারা মুখোমুখি হবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলের। উত্তেজনাকর এই দ্বৈরথকে সামনে রেখে ঘোষণা করা আলবিসেলেস্তেদের দলে এবারও নেই লিওনেল মেসি।

রাশিয়া বিশ্বকাপের পর থেকে আর্জেন্টিনা দলের বাইরে মেসি। খেলেননি এ মাসের শুরুর প্রীতি ম্যাচে। অক্টোবরে সৌদি আরবের মাটিতে ইরাক ও ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচ দুটিতেও খেলবেন না তিনি। খবরটি অবশ্য আগেই নিশ্চিত করেছিলেন আর্জেন্টিনার অন্তর্বর্তীকালীন কোচ লিওনেল স্কালোনি।

মেসিবিহীন আর্জেন্টিনা দলে প্রথমবারের মতো ডাক পেয়েছেন ডিফেন্ডার হুয়ান ফোয়েথ ও মিডফিল্ডার রোদ্রিগো দি পল। ২০ বছর বয়সী ফোয়েথ গত বছর যোগ দিয়েছেন টটেনহামে, যদিও এখন পর্যন্ত অভিষেক হয়নি ইংলিশ ক্লাবটিতে। আরেক ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটি ডিফেন্ডার ওতামেন্দি ফিরেছেন দলে।

বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পর এ মাসেই প্রথমবার মাঠে নেমেছিল আর্জেন্টিনা। প্রীতি ম্যাচ খেলেছে গুয়েতেমালা ও কলম্বিয়ার বিপক্ষে। যদিও এই ম্যাচ দুটির স্কোয়াডের বাইরে ছিলেন মেসি। সামনের মাসে আবার মাঠে নামবে আলবিসেলেস্তেরা। ১১ অক্টোবর ইরাকের মুখোমুখি হওয়ার পাঁচ দিন পর খেলবে ব্রাজিলের বিপক্ষে। কিন্তু এখানেও খেলবেন না পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী।

অন্য খবর  দোহারে গহের স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত

স্কালোনি দিনকয়েক আগে নিশ্চিত করেছিলেন খবরটি, ‘আমি তার (মেসি) সঙ্গে কথা বলেছি। আর আমাদের এখনও মনে হয় এই মুহূর্তে ওর (দলে) না আসাটাই ভালো, তাই ও নেই।’ যদিও আর্জেন্টাইন ফুটবল ভক্তরা আশায় ছিলেন মেসিকে দেখা যাবে ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচে।

বার্সেলোনা অধিনায়ক শেষবার জাতীয় দলের হয়ে খেলেছেন রাশিয়া বিশ্বকাপে। ফ্রান্সের বিপক্ষে শেষ ষোলোর ম্যাচ হেরে বিদায় নিতে হয়েছিল মেসির আর্জেন্টিনাকে। এরপর থেকেই তার জাতীয় দলের ভবিষ্যৎ নিয়ে ধোঁয়াশা। ২০১৬ সালের কোপা আমেরিকা হারের পর অবসরের ঘোষণা দিলেও ফিরে এসেছিলেন তিনি। গোল ডটকম

আর্জেন্টিনা দল:

গোলরক্ষক: সের্হিয়ো রোমেরো, জেরোনিমো রুই, ফ্রাঙ্কো আরমানি।

ডিফেন্ডার: নিকোলাস ওতামেন্দি, রামিরো ফুনেস মোরি, জেরমান পিজিয়া, ওয়ালটার কানেমান, হুয়ান ফোয়েথ, নিকোলাস তাগিয়াফিকো, আলান ফ্রাঙ্কো, ফাব্রিসিও বুস্তস, রেনজো সারাভিয়া।

মিডফিল্ডার: সান্তিয়াগো আস্কাসিবার, লিওনার্দো পারাদেস, জিওভানি লো সেলসো, ফ্রাঙ্কো ভাসকেস, রোদ্রিগো দি পল, রবের্তো পেরেইরা, এদুয়ার্দো সালভিও, ফ্রাঙ্কো সেরভি, রোদ্রিগো বাতালিয়া, মার্কো আকুনা, মাক্সিমিলিয়ানো মেজা, এসকিয়েল পালাসিয়োস।

ফরোয়ার্ড: ক্রিস্তিয়ান পাভোন, গনসালো মার্তিনেস, পাউলো দিবালা, মাউরো ইকার্দি, লাউতারো মার্তিনেস, আনহেল কোরেয়া, জিওভানি সিমিওনে।

অন্য খবর  প্রধানমন্ত্রীর প্রতি মিরাজের কৃতজ্ঞতা

Comments

comments