ব্যাডমিন্টনে খেলোয়াড় সংকট!

10
ব্যাডমিন্টন

মালয়েশিয়ান কোচের অধীনে চলছে প্রশিক্ষণসম্প্রতি ইয়োনেক্স-সানরাইজ আন্তর্জাতিক ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতায় সাফল্য পেয়েছে বাংলাদেশ, জুনিয়র পর্যায়ে জিতেছে তিনটি সোনা। দলটির প্রশিক্ষণের দায়িত্বে ছিলেন অরবিন্দ ভার্মা।

এশিয়ান ব্যাডমিন্টন ফেডারেশন বা ব্যাডমিন্টন এশিয়ার আর্থিক অনুদানে তিন মাসের জন্য বাংলাদেশে আসা এই মালয়েশিয়ান কোচের মেয়াদ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশন বিদেশি কোচের অধীনে প্রশিক্ষণ চালিয়ে নিতে চাইলেও সেই ইচ্ছায় বাদ সেধেছে খেলোয়াড় সংকট।

সোমবার শুরু হয়েছে জাতীয় দলের ক্যাম্প। তবে ১৩ জনের মধ্যে যোগ দিয়েছেন মাত্র চারজন। ক্রীড়াঙ্গনে গুঞ্জন, শীতের সময় ‘খ্যাপ’ খেলার জন্য বাকিরা ক্যাম্পে যোগ দেননি।

ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন বাহার অবশ্য সরাসরি এ বিষয়ে কিছু বলতে চাননি। তার কথা, ‘নানা কারণে সব খেলোয়াড় ক্যাম্পে যোগ দেয়নি। আশা করি, সপ্তাহ খানেকের মধ্যে সবাইকে পাওয়া যাবে।’

শহীদ তাজউদ্দিন ইনডোর স্টেডিয়ামে অনুশীলনের ফাঁকে অরবিন্দ ভার্মা বলেছেন, ‘ক্যাম্পে সবাই যোগ না দিলেও আমি হতাশ নই। এবারের ক্যাম্পের মূল উদ্দেশ্য ভবিষ্যতের জন্য শাটলারদের প্রস্তুত রাখা। তবে দুই-তিন মাসে তাদের উন্নতি বোঝা যাবে না। পরিবর্তনের জন্য কমপক্ষে এক বছর প্রয়োজন।’

অন্য খবর  মাশরাফিদের বোলিং ক্যাম্প শুরু

মালয়েশিয়ান কোচ আরও বলেছেন, ‘শুরুতে আমি ফিটনেসের ওপরে বেশি জোর দিচ্ছি। কারণ বছরের বড় একটা সময় খেলার বাইরে থাকায় খেলোয়াড়দের ফিটনেসে সমস্যা আছে।’

অবশ্য বাংলাদেশের শাটলারদের প্রতিভা নিয়ে কোনও সংশয় নেই তার, ‘খেলোয়াড়রা সবাই খুব প্রতিভাবান। ফেডারেশন আর পরিবারের সহযোগিতা পেলে তারা ভালো করবে।’

Comments

comments